সিলেটে বাস-সিএনজি সংঘর্ষে একই পরিবারের ৪ জনসহ নিহত ৫

  

পিএনএস ডেস্ক : সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের ওসমানীনগরে একটি যাত্রীবাহী বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে একই পরিবারের চারজনসহ পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন আরো ২ জন। আজ বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) রাত ৮টার দিকে উপজেলার ভাঙ্গা (সাদিপুর কেজি স্কুলের সামনে) এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল বণিক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন, ওসমানীনগর উপজেলার গোয়ালাবাজারের ব্রাহ্মণগ্রামের ফজলু মিয়া (৪০), তাঁর স্ত্রী হামিদা বেগম (৩৫), মেয়ে আরিফা বেগম (১২) ও হামিদা বেগমের বোনের মেয়ে কারিমা বেগম (৩) এবং অটোরিকশার চালক জুনেদ মিয়া (২৮)। জুনেদ মিয়া স্থানীয় মোবারকপুর গ্রামের আলা উদ্দিনের পুত্র।

ওসমানী হাসপাতাল পুলিশের ইনচার্জ এসআই ফারুক জানান, দুর্ঘটনার পর চারজনকে হাসপাতালে আনা হয়। এর আগেই তাদের মৃত্যু হয়।

জানা যায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা সিলেটগামী মামুন পরিবহনের একটি বাস (ঢাকা মেট্রো ব ১৪-৯৮৪৮) ও শেরপুরগামী অটোরিকশার (মৌলভীবাজার মেট্রো থ ১১-৩৬৯১) মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই অটোরিকশা চালক নিহত ও অটোরিকশার ৬ যাত্রী মারাত্মক আহত হন। খবর পেয়ে শেরপুর হাইওয়ে পুলিশ, ওসমানীনগর থানা পুলিশ ও তাজপুর ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আহতদের উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেন। হাসপাতালে নেওয়ার পর চারজনকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল বণিক বলেন, ‘দুর্ঘটনায় অটোরিকশা চালকসহ ৫ জন মারা গেছেন। নিহতদের চারজন অটোরিকশার যাত্রী। তারা সবাই একই পরিবারের সদস্য। নিহত অপরজন অটোরিকশার চালক।’

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন