সুনামগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা তালিকায় ধনাঢ্য ব্যক্তির নাম, সংঘর্ষে আহত ২৫

  

পিএনএস ডেস্ক : সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার পাটলী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা করা ২৫০০ টাকা সহায়তার তালিকায় এলাকার ধনাঢ্য ব্যক্তিদের নাম অন্তর্ভুক্ত করায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ২৫ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর অবস্থায় চারজনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, পাটলী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য সোনা মিয়া ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ফেরদৌসী তানিয়া প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা করা ২৫০০ টাকা সহায়তার তালিকা তৈরি করেন। ১০২ জনের এ তালিকায় তারা স্বজনপ্রীতি, এলাকার ধনাঢ্য ব্যক্তি ও চাকরিজীবীদের নাম অন্তর্ভুক্ত করেন বলে অভিযোগ ওঠে। এ নিয়ে এলাকায় তাদের দুজনের বিরুদ্ধে নিন্দা-সমালোচনা শুরু হয়।

বিষয়টি নিয়ে গ্রামের বাসিন্দারা সাবেক ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আশিক মিয়ার বাড়িতে গত শুক্রবার রাতে সালিশ বৈঠকে বসে। গ্রামবাসীরা তালিকা সংশোধনের দাবি তুলে। এ বিষয়টি নিয়ে গতকাল শনিবার সকালে ইউপি সদস্য সোনা মিয়ার পক্ষে দবির মিয়া ও একই গ্রামের মোজাফফর আলী নামে দুই ব্যক্তির মধ্যে মুঠোফোনে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে তাদের দুজনের পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে ২৫ জন আহত হন।

সংঘর্ষের ঘটনায় গুরুতর আহত সিরাজুল হক (৬৫), কাওছার আহমেদ (২৬), বাবুল আহমদ (২৮) জাকারিয়া আহমেদকে (৩০) সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বাকিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ইউপি সদস্য সোনা মিয়া বলেন, ‘আমি ও আমার ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য মিলে ১০২টি নাম তালিকাভুক্ত করেছিলাম। এ নিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অশালীন ভাষায় লেখালেখি হয়। গত শুক্রবার রাতে বিষয়টি নিষ্পত্তি হয়। এরপরও গতকাল শনিবার মুঠোফোনে আমার পক্ষের লোকজনকে প্রতিপক্ষের লোকজন গালিগালাজ করায় দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।’

জগন্নাথপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আতিকুর রহমান জানান, সংঘর্ষের ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। উভয়পক্ষের আহতরা চিকিৎসাধীন আছেন। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন