শৈলকুপায় ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ

  

পিএনএস ডেস্ক : ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সপ্তম শ্রেণির স্কুল ছাত্র ধর্ষন করেছে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে শৈলকুপা উপজেলার গাবলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রী ভাটই মাধ্যমিক বিদ্যায়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। নির্যাতিতা স্কুলছাত্রীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নির্যাতিত স্কুল ছাত্রী জানায়, রাত সাড়ে ৮ টার দিকে পড়া শেষ করে বাড়ির পাশে যাচ্ছিলো তার বাবা-মাকে ডাকতে। বাড়ির বাইরে যাওয়া মাত্রই গাবলা গ্রামের রুহুল আমিনের ছেলে ও ভাটই মাধ্যমিক বিদ্যায়ের ৭ম শ্রেনীর ছাত্র রিফাত তার ৩ জন সহযোগি জোরপুর্বক স্কুল ছাত্রীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে বাড়ির পাশের কলাবাগানে ফেলে রেখে যায়। পরে পরিবারের লোকজন তাকে না পেয়ে খোঁজা-খুজি শুরু করে। একপর্যায়ে তাকে কলাবাগান থেকে অচেতন অবস্থান উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের গাইনি বিভাগের চিকিৎসক ডাঃ মার্ফিয়া ধর্ষিতার ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন করেন। তিনি শনিবার বিকালে জানান, একজন দ্বারা শিশুটি ধর্ষিত হয়েছে। শৈলকুপা থানার ওসি বজলুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech