রেসিডেনসিয়ালের শিক্ষার্থী আবরারের লাশ উত্তোলন

  

পিএনএস ডেস্ক : আদালতের নির্দেশে ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজের শিক্ষার্থী নাইমুল আবরার রাহাতের লাশ দাফনের ৭ দিন পর কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে।

শনিবার বেলা ৩ টার দিকে নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার ধন্যপুর গ্রামের পারিবারিক কবরস্থান থেকে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী হাকীম ইলিশায় রিছিলের উপস্থিতিতে পুলিশ তার লাশ উত্তোলন করে। পরে ময়না তদন্তের জন্য লাশটি নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

এ সময় সোনাইমুড়ী উপজেলার নির্বাহী অফিসার টিনা পাল, ওসি আবদুস সামাদ, মোহাম্মদপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ আবদুল আলিম স্থানীয় সোনাপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, নিহত আবরারের চাচা মাওঃ মোহাম্মদ উল্যা সহ স্থানীয় এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, ১ নভেম্বর ঢাকার রেসিডেনসিয়াল মডেল স্কুল এন্ড কলেজে কিশোর ম্যাগাজিন 'কিশোর আলো'র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে মঞ্চের পেছনে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে ওই প্রতিষ্ঠানের স্কুল শাখার নবম শ্রেণীর ছাত্র নাইমুল আবরার রাহাত মারা যায়। ২ নভেম্বর সকালে ধন্যপুরে গ্রামের বাড়ীতে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তার মরদেহ দাফন করা হয়।

এ ঘটনায় আবরারের বাবা মজিবুর রহমান বাদী হয়ে প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমানের বিরুদ্ধে গত বুধবার ঢাকার মুখ্য মহা নগর হাকিম আদালতে মামলা দায়ের করেন।

মামলাটি আমলে নিয়ে ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মোহাম্মদ আমিনুল হক বাদির জবানবন্দি গ্রহণ করে লাশ কবর থেকে তুলে ময়না তদন্তের নির্দেশ দেন।

পিএনএস/মো. শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech