দৌড়ে সড়কে নেমেই অচেতন রক্তাক্ত তরুণ, হাসপাতালে মৃত্যু

  

পিএনএস ডেস্ক : সিলেট নগরের কাস্টঘর এলাকার দোতলা ভবনে তাস খেলা নিয়ে ঝগড়ার জেরে এক তরুণ ছুরিকাহত হন। এরপর ওই তরুণ আহত অবস্থায় ভবন থেকে দৌড়ে নেমে সড়কে আসার পর অচেতন হয়ে মাটিতে পড়ে যান। পথচারীরা বিষয়টি দেখলেও কেউ ওই তরুণকে উদ্ধার করতে এগিয়ে আসেননি। পরে টহল পুলিশ খবর পেয়ে তাঁকে উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাত পৌনে আটটার দিকে নগরের কাস্টঘর–মহাজনপট্টি সড়কে এ ঘটনা ঘটে। নিহত তরুণের পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত পৌনে আটটার দিকে সিলেট নগরের কাস্টঘর এলাকার একটি দোতলা ভবনে চার-পাঁচজন তরুণ মিলে তাস খেলছিলেন। নিজেদের মধ্যে কোনো বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়। এর জেরে এক তরুণের পায়ে ছুরিকাঘাত করা হয়। পরে ছুরিকাহত ওই তরুণ ভবন থেকে ছুটে নেমে কাস্টঘর-মহাজনপট্টি সড়কে জ্ঞান হারিয়ে লুটিয়ে পড়েন। এ সময় ওই তরুণের পা থেকে রক্ত ঝরছিল। পথচারীরা বিষয়টি লক্ষ্য করলেও কেউ তাঁকে উদ্ধার করতে এগিয়ে আসেননি। বন্দরবাজার এলাকার টহল পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে তরুণকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। ওই তরুণের লাশ সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। ওই তরুণের ডান পায়ে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন ছিল। আহত স্থান থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে।


পুলিশের ধারণা, কস্টঘরের ওই ভবনে নিহত তরুণসহ কয়েকজন মিলে নেশাদ্রব্য সেবন করে তাস দিয়ে জুয়া খেলছিলেন। সে সময় টাকা নিয়ে বিবাদ হয়। এতে অন্যরা ক্ষিপ্ত হয়ে তাঁকে ছুরিকাঘাত করেছে।

সিলেট কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ সেলিম মিঞা বলেন, নিহত তরুণের নাম-পরিচয় আজ বিকেল সোয়া পাঁচটা পর্যন্ত জানা যায়নি। পুলিশ তাঁর পরিচয় সন্ধান করছে। চিকিৎসকের বরাত দিয়ে তিনি আরও বলেন, ওই তরুণ অতিরিক্ত রক্তক্ষরণেই মারা গেছেন। এ ঘটনায় মামলা করা হয়নি। তাঁর পরিবারের খোঁজ পাওয়ার পর আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।


পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech