ডাক্তার দেখাতে এসে লাশ হয়ে ফিরল মা-ছেলে

  

পিএনএস ডেস্ক : বরিশাল-পুটয়াখালী মহাসড়কের নগরীর সাগরদী আলীয়া মাদ্রাসা এলাকায় মাহেন্দ্র আলফা ও পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষে মা ও ছেলে নিহত হয়েছে। আজ শনিবার বেলা সোয়া ১২টার দিকে এই দুর্ঘটনায় আহত আরও ৩ জনকে শেরে-ই বাংলা মেডিকেলে (শেবাচিম) ভর্তি করা হয়েছে।

দুর্ঘটনায় নিহতরা হলেন ঝালকাঠি জেলার নলছিটি উপজেলার আমিরাবাদ এলাকার মালেক হাওলাদারের স্ত্রী দেলোয়ারা বেগম (৬৫) ও তার ছেলে শিপন হাওলাদার (৩৫)। আহতরা হলেন মালেক হাওলাদারের অপর ছেলে স্বপন ও স্বপনের স্ত্রী মোর্শেদা এবং তাদের ভাইয়ের ছেলে রবিউল এবং স্বজন আনিস। দুর্ঘটনায় হতাহতরা একই পরিবারের সদস্য। তারা ডাক্তার দেখাতে নলছিটি থেকে বরিশাল নগরীতে এসেছিলেন।

শেবাচিম হাসপাতালে দায়িত্বরত নগর গোয়ন্দা বিভাগের এসআই নাজমুল হক জানান, একটি মিনি ট্রাক (বরিশাল মেট্রো ড-১১-০০৪২) রূপাতলী বাস টার্মিনালের দিকে যাচ্ছিলো। ট্রাকটি নগরীর সাগরদী আলিয়া মাদ্রাসা এলাকা অতিক্রমকালে রূপাতলী থেকে লঞ্চঘাটমুখি যাত্রীবাহি একটি মাহেন্দ্র আলফার (বরিশাল থ-১১-০০১৭) সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মাহেন্দ্র আলফাটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। ঘটনাস্থলেই মাহেন্দ্র যাত্রী দেলোয়ারা বেগম নিহত হন। দেলোয়ারা বেগমের ছেলেসহ আরো ৫ জন আহত যাত্রীকে উদ্ধার করে শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করে স্থানীয়রা। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর দেড়টায় শিপন হাওলাদার মারা যায়।

কোতয়ালী মডেল থানার ওসি মো. নুরুল ইসলাম জানান, দুর্ঘটনার পর পুলিশ ঘাতক ট্রাকটি চালকের সহকারী (হেলপার) সহ আটক করলেও চালক পালিয়ে গেছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের সহ আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি।

পিএনএস/মো. শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech