র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে চাপাতি তুহিন নিহত

  

পিএনএস ডেস্ক : নারায়ণগঞ্জে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তুহিন ওরফে চাপাতি তুহিন নামের এক যুবক নিহত হয়েছে। র‌্যাবের দাবি, সে শহরের তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী। বুধবার ভোররাতে সদর উপজেলার সৈয়দপুর এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে র‌্যাব অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে। নিহত তুহিন শহরের দেওভোগ শান্তিনগর এলাকার কাওসার হোসেনের ছেলে।

র‌্যাব-১১ এর সহকারী পুলিশ সুপার মশিউর রহমান জানান, মঙ্গলবার রাতে কুমিল্লার দেবিদ্বার থেকে তুহিনকে আটক করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যমতে র্যাব ভোর রাতে শহরের সৈয়দপুর এলাকায় অস্ত্র ও মাদক উদ্ধারে যায়। এ সময় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা তুহিনের সহযোগীরা তাকে ছাড়িয়ে নিতে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে। বন্দুকযুদ্ধের এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থল থেকে তুহিনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরে ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব জানায়, নিহত তুহিন এলাকায় কোথাও তুহিন বন্ড, আবার কোথাও চাপাতি তুহিন নামে পরিচিত ছিলো। সে ছিলো একজন দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে হত্যা, মাদক ও চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অভিযোগে অন্তত চারটি মামলা রয়েছে।

পিএনএস/মো. শ্যামল ইসলাম রাসেল


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech