পদ্মা নদীতে নিখোঁজ ভাই-বোনের মরদেহ উদ্ধার

  

পিএনএস ডেস্ক: শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলায় পদ্মা নদীতে নিখোঁজ আপন দুই ভাই-বোন শরীফ বেপারী (১৭) ও মাহফুজা আয়শার (৯) মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ডুবুরিরা তাদের মরদেহ উদ্ধার করে।

নড়িয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মঞ্জুরুল হক আকন্দ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মঙ্গলবার দুপর ১২টায় উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের নওপাড়া এলাকার পদ্মা নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হয় শরীফ ও মাহফুজা। তারা নওপাড়া ইউনিয়নের নওপাড়া গ্রামের আব্দুল হক ব্যাপারীর ছেলে-মেয়ে। শরীফ ঢাকা বিএম কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্র ও মাহফুজা মদিনানগর দাখিল মাদরাসার তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী।

আব্দুল হক ব্যাপারী জানান, ১৯৯০ সাল থেকে পরিবার নিয়ে ঢাকার মিরপুর-১১ মদিনানগর এলাকায় থাকেন। তার গ্রামের বাড়ি শরীয়তপুরের নওপাড়ায়। তিনি একজন সিএনজি চালক। তার দুই ছেলে এক মেয়ে। ঈদ পালন করতে গত বুধবার তার মেয়ে মাহফুজা ও শনিবার ছেলে শরীফ গ্রামের বাড়ি নওপাড়া আসে।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে শরীফ ও মাহফুজা পদ্মা নদীতে গোসল করতে যায়। নদীতে সাঁতার কাটতে কাটতে গভীর পানিতে তলিয়ে যায় শরীফ। ভাইকে বাঁচাতে নদীতে নেমে বোন মাহফুজাও পানিতে তলিয়ে যায়।

বিলাপ করতে করতে আব্দুল হক ব্যাপারী বলেন, গ্রামে এসে আদরের ছেলে-মেয়েকে হারালাম। আমার সব শেষ হয়ে গেল।

নওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রাশেদ আজগর সোহেল মুন্সী বলেন, নিখোঁজ হওয়ার পর নড়িয়া থানা পুলিশকে জানানো হয়। নারায়নগঞ্জ থেকে তিনজন ডুবুরি এনে কয়েক ঘণ্টা চেষ্টার পর রাত সাড়ে ৮টার দিকে নিখোঁজ দুজনকে উদ্ধার করে। নিহতদের জানাজা শেষে রাতেই নওপাড়ায় গ্রামে দাফন সম্পন্ন হবে।

পিএনএস/ হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech