৩০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে কোরবানির গরু

  

পিএনএস ডেস্ক: ডিজিটাল মেশিনে ওজন দিয়ে ৩০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে কোরবানির গরু। ইতোমধ্যে খামারের কয়েকটি গরু ৩০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়ে গেছে।

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার সাপুকুর ইউনিয়নের পাঠানটারী এলাকায় অফিল এগ্রো লিমিটেড নামে একটি খামারে ওজন করে বিক্রি হচ্ছে এসব কোরবানির গরু।

স্থানীয়রা জানান, শুধুমাত্র কোরবানির ঈদেই গরু কিনে থাকেন এমন অনেক মানুষ রয়েছেন। ফলে গরুর দাম নির্ধারণের কোনো ধারণা থাকে না তাদের। পাশাপাশি গরুর সরকারি কোনো বিক্রয় মূল্য নেই। এ অবস্থায় বাজারে গরু কিনতে গিয়ে অনেকেই প্রতারিত হন। তাই অফিল এগ্রো লিমিটেডের খামারে গরু ওজন করেই বিক্রি করা হচ্ছে। গরুর দাম নির্ধারণ করা হয়েছে প্রতি কেজি মাত্র ৩০০ টাকা।

পছন্দের গরুটি স্ক্রেলে পরিমাপ করেই দাম নির্ধারণ করছেন ক্রেতারা। সেক্ষেত্রে দামে প্রতারিত হওয়ার সুযোগ নেই। এ খামারে ছোট, মাঝারি ও বড় আকারের গরু রয়েছে। যার যত ওজনের গরু প্রয়োজন, তিনি তত ওজনের গরুই কিনতে পাবেন। খামারে সর্বনিম্ন ২০০ থেকে সর্বোচ্চ ৪০০ কেজি ওজনের গরু রয়েছে। তবে মাঝারি ওজনের গরুর চাহিদা অনেক বেশি। খামারটিতে বিক্রিযোগ্য মোট ২২৮টি গরু রয়েছে।

খামার থেকে গরু কিনে নেয়া আলী হোসেন বলেন, ঈদের বাজার ঘুরে পশু ক্রয় করা কষ্টের। দালালদের দৌরাত্ম্যে কোরবানি পশুর হাটে যাওয়া মুশকিল। খামারে পছন্দ করার পর ওজন করে দাম নির্ধারণের সুযোগ থাকায় প্রতারণার সুযোগ নেই। এজন্য এই খামার থেকে গরু কিনেছি।

খামারের স্টোর কাম সুপারভাইজার আসাদুজ্জামান বলেন, বাজারের হাড্ডিসার গরু কিনে এই খামারে পালন করা হয়। এরপর ক্রেতার চাহিদা অনুযায়ী বিক্রি করা হয়। খামারে গরুর দেখাশোনা করতে শ্রমিক রয়েছেন ১৮-২০ জন। গরুর বাজার সম্পর্কে অনেকের ধারণা নেই। তাই গরু ওজন করে প্রতি কেজি ৩০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech