নড়াইলে হত্যা মামলা তুলে নিতে পরিবারকে মারধর

  

পিএনএস ডেস্ক : নড়াইলে সারোল গ্রামের লিপু হত্যা মামলার আসামিরা মামলা তুলে নিতে পরিবারের লোকদের প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী মনিরা পারভীন আদালতে ১০৭ ধারায় অভিযোগ করেছেন।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, গত ২৮ এপ্রিল উপজেলার সারোল গ্রামের বৌবাজারে সৈয়দ মরফুদ আলীর ছেলে সৈয়দ আহমদ আলী লিপুকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে প্রতিপক্ষরা। পরে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় ২৯ এপ্রিল নিহতের ছোট ভাই সৈয়দ শওকত আলী স্বপন বাদী হয়ে ইউপি সদস্য আশরাফুল আলমসহ ৩৮ জনকে আসামি করে লোহাগড়া থানায় হত্যা মামলা করেন।

বর্তমানে আসামিদের মধ্যে তিনজন পলাতক এবং দশজন হাজতে রয়েছে, বাকিরা নড়াইল জেলা জজ আদালত থেকে জামিন পেয়ে বাড়িতে এসে মামলার বাদী শওকত আলী, নিহতের স্ত্রী মনিরা পারভীনসহ তার তিন ছেলেকে মামলা তুলে নিতে হুমকি দিচ্ছে। এমনকি নিহতের স্ত্রী মনিরাকে গত ২৪ মে দিঘলিয়া বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে আসামিরা মারধর করে বলে তিনি অভিযোগ করেছেন। এ ঘটনায় মনিরা গত ২৬ মে নড়াইল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১০৭ ধারায় একটি অভিযোগ করেন।
বাদী শওকত আলী জানান, জামিনে বেরিয়ে আসা আসামিরা আমাদের মারধর করছে। বহিরাগত সন্ত্রাসী দিয়ে বিভিন্নভাবে ভয় ভীতি দিচ্ছে, এমনকি নিজেদের দলের যে কোন বৃদ্ধকে হত্যা করে আমাদের ফাঁসানোর অপচেষ্টা করছে। তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেন আসামিরা।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা লোহাগড়া থানার উপ পরিদর্শক মিল্টন কুমার দেবদাস বলেন, বাদীর অভিযোগ সঠিক নয়। পলাতক আসামিদের আটক করার চেষ্টা অব্যাহত আছে। মামলার বাদীসহ পরিবারকে ভয়ভীতি দেখালে থানায় এসে জিডি করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech