মহাদেবপুরে বিষপানে গৃহবধুর আত্মহত্যা

  

পিএনএস, মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি : নওগাঁর মহাদেবপুরে সাহারা খাতুন (২৬) নামে এক গৃহবধু বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার সফাপুর ইউনিয়নের বাঁশবাড়িয়া গ্রামে। সাহারা খাতুন ওই গ্রামের আয়েজ উদ্দীনের মেয়ে।

জানা গেছে, নিহত সাহারার বাবা একজন হতদরিদ্র কৃষক। সংসারে অভাবের তাড়নায় বিবাহের পূর্বে ঢাকায় গার্মেন্টস কর্মী হিসেবে যোগদান করেন সাহারা। সেখানে কর্মরত অবস্থায় পরিচয় হয় দিনাজপুরের ফুলবাড়ি এলাকার এক যুবকের সাথে। পরিচয় থেকে প্রেম। তারপর উভয় পরিবারের সম্মতিতে বিয়ে। বিয়ের পর ভালোই চলছিল তাদের সংসার। কিন্তু অর্থই অনর্থের মূল। শুরু হয় যৌতুকের জন্য নির্যাতন। বিয়ের দুই বছর যেতে না যেতেই ফিরে আসতে হয় বাবার বাড়ি নওগাঁর মহাদেবপুরে।

মাঝে মাঝে জামাই যৌতুক স্বরুপ মোটরসাইকেল দাবি করতো। বেশ কিছু দিন থেকে যৌতুক নিয়ে দ্বন্দ্ব চলতে থাকায় মেয়েকে ভাত খাওয়াবেন না বলে স্বামীর বাড়ি থেকে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসেন তার বাবা। কিন্তু সাহারা ওই ছেলের জন্য পাগল ছিলো। সব-সময় চাইতো স্বামীর সংসার করতে। দাবিকৃত মোটরসাইকেল দিতে না পারায় ঈদের আগের দিন মোবাইল ফোনে বাক-বিতন্ডা হয় মেয়ে এবং জামাতার মাঝে। এতে পারিবারিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন হওয়ার রাগে বিষপান করে সাহারা।

জানতে পেরে পরিবারের লোকজন দ্রুত তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। দু’দিন চিকিৎসা শেষে রিলিজ নিয়ে বাড়ি ফিরে আসেন সাহারা। পরবর্তীতে সাহারা গত শুক্রবার মৃত্যু বরণ করে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচর্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন জানান, এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা হয়েছে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech