সিলেটে হামলার পর র‌্যাবের অভিযানের জেরে সড়ক অবরোধ

  

পিএনএস ডেস্ক : সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলায় চোরাচালানকারীদের বিরুদ্ধে অভিযানে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছে র‌্যাব-৯ এর একটি দল। গত বুধবার দিবাগত মধ্যরাতে এ ঘটনা ঘটে। এরপর র‌্যাব শক্তি বাড়িয়ে অভিযান চালিয়ে আটক করে ২২ জনকে। এর জের ধরে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সিলেট-তামাবিল সড়ক অবরোধ করেন স্থানীয়রা।

জানা গেছে, চোরাচালানীদের ধরতে গত বুধবার মধ্যরাতে জৈন্তাপুর উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের বালিপাড়া এলাকায় অভিযানে যায় র‌্যাবের একটি দল। এ সময় চোরকারবারিরা র‌্যাবের ওপর হামলা চালায়। এতে র‌্যাবের তিন সদস্য আহত হন। হামলার শিকার হয়ে র‌্যাব শক্তি বৃদ্ধি করে এলাকায় অভিযান চালিয়ে ফতেহপুর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আব্দুল কাহিরসহ ২২ জনকে আটক করে।

র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, জৈন্তাপুর উপজেলার ফতেহপুরসহ বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় গরুর চালান দেশে আসছিল। এর প্রেক্ষিতেই চোরাচালানীদের ধরতে অভিযানে যায় র‌্যাব। সেখানে বাধার মুখে পড়ে র‌্যাব।

এদিকে, ২২ জনকে আটকের প্রতিবাদে স্থানীয় তীলপাড়ার লোকজন বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সিলেট-তামাবিল সড়ক অবরোধ করে রাখে। এতে কয়েক কিলোমিটারজুড়ে যানজট সৃষ্টি হয়। আটকা পড়ে পণ্যবাহী ট্রাকও। স্থানীয়দের দাবি, র‌্যাবের সাথে ঝামেলা হয়েছে বালিপাড়া গ্রামের লোকদের। তবে র‌্যাব তীলপাড়ার লোকদের ধরে নিয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে কথা বলতে র‌্যাব-৯ সিনিয়র সহকারী পরিচালক ও গণমাধ্যমক কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামানকে ফোন দেয়া হলে তিনি ছুটিতে আছেন বলে জানান। পরে র‌্যাব-৯ এর অপারেশন্স অফিসারকে ফোন দেয়া হলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করলেও বিস্তারিত জানিয়ে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্রেরণ করা হবে বলে জানান। তবে সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় এ প্রতিবেদন লেখা সময় পর্যন্ত র‌্যাবের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাওয়া যায়নি।

জৈন্তাপুর উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল আহমদ বলেন, বুধবার দিবাগত মধ্যরাতে বালিপাড়া থেকে ভারতীয় গরুসহ একজনকে আটক করে র‌্যাব। পরে চোরাচালানীরা র‌্যাবের গাড়িতে হামলা চালিয়ে তাকে ছিনিয়ে নেয়। এরপর বালিপাড়া ও তীলপাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে ২২ জন আটক করে নিয়ে যায়। এর প্রেক্ষিতেই স্থানীয়রা সড়ক অবরোধ করেন। পরে উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বিকালে তারা অবরোধ প্রত্যাহার করেন।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech