বিমান দুর্ঘটনায় নিহত পিয়াসের লাশ বরিশালে

  


পিএনএস, বরিশাল: নেপালের কাঠমান্ডুতে মর্মান্তিক বিমান দুর্ঘটনায় নিহত পিয়াস রায়ের মরদেহ বরিশালে পৌঁছেছে। বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৩টায় নগরীর এম এ গফুর সড়কের বাসায় তার লাশ আনা হয়েছে।

শুক্রবার (২৩ মার্চ) সকাল ৮টায় পিয়াসের মরদেহ জিলা স্কুল প্রাঙ্গণে নেয়া হয় এবং শিক্ষার্থীরা শ্রদ্ধা জানানোর পর বরিশাল মহা শশ্মাণে সমাহিত করা হবে।

এর আগে রাত সাড়ে ১২টায় ঢাকা থেকে পিয়াসের লাশ শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য তার সর্বশেষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গোপালগঞ্জের সাহেরা খাতুন মেডিকেল কলেজে নেয়া হয়েছিল।

দুর্ঘটনার ১২ দিন পর ডিএনএ পরীক্ষা শেষে বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীতে পিয়াসের মরদেহ তার বাবা সুখেন্দু বিকাশ রায় গ্রহণ করেন।

পিয়াস রায়ের বাড়ি বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার দাড়িয়াল ইউনিয়নের মধুকাঠি গ্রামে। পিয়াসের বাবা সুখেন্দু বিকাশ রায় নলছিটি উপজেলার চন্দ্রকান্ত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। মা পূর্ণিমা রায় বরিশাল নগরীর একটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক। পিয়াস গোপালগঞ্জের সাহেরাখাতুন মেডিকেল কলেজ থেকে ফাইনাল পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। দুই ভাই বোনের মধ্যে পিয়াস রায় ছিল বড়। বোন শুভ্রা রায় রাজধানীর নর্দান ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

উল্লেখ্য, ঢাকা থেকে ৭১ আরোহী নিয়ে গত ১২ মার্চ দুপুরে নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় ইউএস-বাংলার ফ্লাইট বিএস-২১১ রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে এবং আগুন ধরে যায়।

এতে উড়োজাহাজে থাকা ৫১ আরোহী নিহত হন। উড়োজাহাজে চার ক্রুসহ ৩৬ জন বাংলাদেশি ছিলেন। এদের ২৬ জনই নিহত হয়েছেন। আহত হন ১০ জন।

সোমবার শনাক্ত হওয়া ২৩ বাংলাদেশির মরদেহ ঢাকায় আনা হয়। আর্মি স্টেডিয়ামে জানাজা শেষে পরিবারের কাছে মরদেহগুলো হস্তান্তর করা হয়। এর পর বাকি তিনজনের মরদেহ বৃহস্পতিবার ঢাকায় এনে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech