নাসিম শাহর হ্যাটট্টিকে ৩য় দিনও পাকিস্তানের

  

পিএনএস ডেস্ক : বাংলাদেশের বিপক্ষে নাসিম শাহর হ্যাটট্রিক। নাজমুল হোসেন শান্ত, তাইজুল ইসলাম ও মাহামুদউল্লাহ রিয়াদের উইকেট শিকার করে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেছেন পাকিস্তানের তরুণ পেসার নাসিম শাহ। টেস্ট ক্যারিয়ারের তৃতীয় ম্যাচেই হ্যাটট্রিকের ইতিহাস গড়েছেন মাত্র ১৬ বছর বয়সী ডানহাতি এ ফাস্ট বোলার।

রাওয়ালপিন্ডিতে প্রথম ইনিংসের রানের পাহাড় গড়ে স্বাগতিক পাকিস্তান। শান ও বাবরের শতকে শেষ পর্যন্ত সবক’টি উইকেট হারিয়ে পাকিস্তান সংগ্রহ করে ৪৪৫ রান। আর তাতেই প্রথম ইনিংসে ২১২ রানের লিড পায় স্বাগতিকরা। জবাবে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে তৃতীয় দিন শেষে ৬ উইকেট ১২৬ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। দিন শেষে উইকেটে অপরাজিত থাকেন অধিনায়ক মুমিনুল হক (৩৭) এবং লিটন দাস (০)। দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশ দল পিছিয়ে আছে ৮৬ রান আর হাতে আছে ৪ উইকেট।

দ্বিতীয় ইনিংসে পিছিয়ে থেকে ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ভাল শুরু করে টাইগাররা। তবে প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যাট হাতে ব্যর্থ সাইফ হাসান। প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে ফিরলেও দ্বিতীয় ইনিংসের নামের পাশে যোগ করেন ১৬ রান। আর উদ্বোধনী জুটি থেকেই আসে ৩৯ রান। তামিম-সাইফের জুটি ভাঙেন পাকিস্তানের ১৬ বছর বয়সী পেসার নাসিম শাহ।

সাইফ ফিরলে শান্তকে নিয়ে প্রাথমিক বিপর্যয় সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন তামিম ইকবাল। চার বিরতি পর্যন্ত সামাল দিয়েছিলেনও, সে পর্যন্ত দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে তামিম-শান্ত তোলেন ১৪ রান। তবে চা-বিরতি থেকে ফিরেই ইয়াসির শাহর বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফেরেন তামিম ইকবাল। দলীয় ৫৩ রানে দ্বিতীয় উইকেটের পতন হয় বাংলাদেশের। এর আগে তামিম ইকবাল সংগ্রহ করেন ৩৪ রান।

এরপর তৃতীয় উইকেট জুটিতে দলের হাল ধরেন অধিনায়ক মুমিনুল হক এবং নাজমুল হোসেন শান্ত। মাত্র ৫৩ রানে দুই উইকেট হারানো বাংলাদেশ দলের তৃতীয় উইকেট জুটিতে অর্ধশতকের জুটি গড়ে দলীয় শতক পূর্ণ করেন। তবে মুমিনুলের সঙ্গে ৭১ রানের জুটি গড়ে ফিরে যান নাজমুল হোসেন শান্ত। আউট হওয়ার পর্বে ৩৮ রান করেন শান্ত। এরপর উইকেটে আসেন নাইটওয়াচম্যান হিসেবে তাইজুল ইসলাম। কিন্তু নাসিম শাহ’র আগুন ঝরা বোলিংয়ে একে একে ফিরে যান তাইজুল আর মাহমুদুল্লাহও। আর তাতেই হ্যাটট্রিক পূর্ণ হয় ১৬ বছর বয়সী নাসিম শাহর।

দিনের শেষ দিকে নাসিম শাহ্র পেস আর ইয়াসির শাহ্র ঘূর্ণিতে মাত্র ২ রানে ৪ উইকেট হারায় বাংলাদেশ দল। তাইজুল, মাহমুদুল্লাহ এবং মিঠুন তিনজনই ফিরেছেন কোনো রান যোগ না করেই। আর তাতেই দিনের শেষ ভাগটা নিজেদের করে নিয়ে প্রথম টেস্ট জয়ের সুবাস পাচ্ছে পাকিস্তান।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের করা ২৩৩ রানের জবাবে শান মাসুদ, বাবর আজমের সেঞ্চুরি এবং হারিস সোহেলের ৭৫ রানে ভর করে সবগুলো উইকেটের খরচায় ৪৪৫ রান তোলে স্বাগতিকরা। সেই লিড নেয় ২১২ রানের।

৩ উইকেট হারিয়ে ৩৪২ রান নিয়ে টেস্টের দ্বিতীয় দিন শুরু করে দিনের দ্বিতীয় সেশনেই রাহি-রুবেল তোপে অল আউট হয়ে যায় স্বাগতিক পাকিস্তান।

সফরকারীদের হয়ে আবু জায়েদ রাহি এবং রুবেল হোসেন নেন তিনটি করে উইকেট। আর পাকিস্তানের হয়ে ইনিংস সর্বোচ্চ ১৪৩ রান করেন বাবর আজম।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন