সুযোগ থাকলে মাশরাফি অবশ্যই খেলবে: পাপন

  

পিএনএস ডেস্ক : জিম্বাবুয়ে সিরিজ শেষ হতে না হতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের কড়া নাড়া শুরু হয়েছে। ঘরের মাঠে আগামী ২২ নভেম্বর থেকে শুরু হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ। ওই সিরিজের আগে বাংলাদেশ দল কেমন হবে তা নিয়ে উঠছে নানা প্রশ্ন।

ইনজুরি কাটিয়ে সাকিব ফিরবেন কিনা। দুই ইনজুরিতে থাকা তামিম ফিরবেন কিনা। আর সবচেয়ে বড় প্রশ্ন সম্ভবত নির্বাচনের কারণে ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে মাশরাফি খেলবেন কিনা।

প্রশ্নের উত্তর এখনই খোলাখুলি দেননি কেউ। মাশরাফি তার খেলার শঙ্কা-সম্ভাবনা নিয়ে কিছু বলেননি। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন নিশ্চিত করে কিছু জানেন না। মাহমুদুল্লাহ বলতে পারলেন না কিছু। তবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের অধিনায়ক থাকা মাহমুদুল্লাহ আশা করছেন, মাশরাফি খেলবেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ।

বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক নড়াইল-২ আসনের জন্য আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। চূড়ান্ত মনোনয়ন পেলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের সময়ই তাকে নির্বাচনী প্রচারে থাকতে হতে পারে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর ভোট আর ৯, ১১ ও ১৪ ডিসেম্বর উইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ। মাশরাফি খেলবেন নাকি নির্বাচনী প্রচারে থাকবেন? বৃহস্পতিবার মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শেষে পুরস্কার বিতরণীর সময় বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানকে প্রশ্নটা করা হলো।

বিসিবি সভাপতি শুনেই হাসলেন। যেন তিনি জানতেন এই প্রশ্নের মুখোমুখি তাকে হতেই হবে। তিনি উত্তরে বললেন, 'কঠিন প্রশ্ন। মাশরাফির মনোনয়নপত্র জমার একটা তারিখ আছে। ওর কবে কী কর্মসূচি, ঠিক জানি না। ওর সঙ্গে আজ দেখা হওয়ার সম্ভাবনা আছে। তখন বিস্তারিত আলাপ করবো। সুযোগ থাকলে, সে অবশ্যই খেলবে। ওর কাছে সব সময়ই খেলাটার প্রাধান্য বেশি। একদিন সময় পেলেও মাশরাফি খেলবে।'

নাজমুল হাসান মনে করেন, খেলা আর রাজনীতি এক সঙ্গে চালিয়ে যেতে মাশরাফির সমস্যা হবে না। তিনি বলেন, 'তার কোন সমস্যা হবে বলে আমি মনে করি না। সাকিবকে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ঠিক আছে তুমি খেলো। কিন্তু মাশরাফির ব্যাপারটা ভিন্ন। ও এখনো যে খেলছে, এটাই অনেক। সে খেলোয়াড় হিসেবে নয়, আমাদের অধিনায়ক হিসেবে খেলে। ওর অধিনায়কত্ব আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বকাপের পর হয়তো অবসরে যাবে মাশরাফি। সেটি যদি হয় মাত্র কয়েক মাসের ব্যাপার। কয়েক মাস পর অবসর নিয়ে আরেকটি ক্ষেত্রে সে থাকল। যেখান সে ক্রীড়াক্ষেত্রে জোরালো অবস্থান রাখতে পারবে বলেই আমি বিশ্বাস করি।'

ওদিকে মাহমুদুল্লাহ ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে বললেন, মাশরাফিকে পাওয়ার ব্যাপারে তিনি আশাবাদী। মাহমুদুল্লাহ বলেন, 'ইনশা আল্লাহ মাশরাফি ভাইকে পাবো। তিনি আমাদের ওয়ানডে অধিনায়ক। তিনি যদি সুস্থ থাকেন তবে অবশ্যই তিনি খেলবেন।' মাশরাফি নির্বাচন করুক বা না করুক তিনি বাংলাদেশ দলের হয়ে খেলবেন এই প্রত্যাশা কোটি ভক্তের। এখন মাশরাফি কি সিদ্ধান্ত নেন। শেষ পর্যন্ত কি সিদ্ধান্ত আসে সেটাই দেখার বিষয়।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech