এই বছর থেকে শুরু হচ্ছে টেনিস বিশ্বকাপ!

  

পিএনএস ডেস্ক : মাত্র শেষ হল বিশ্বকাপ ফুটবল। এখনো ফুটবলপ্রেমীদের সেই রেশ কাটেনি। বিশ্বজয়ীর শিরোপা উঠেছে ফ্রান্সের হাতে। সব স্মৃতিই যেন এখনো টাটকা। আসলে বিশ্বকাপ এমনই। সহজে যার মায়া কাটানো যায় না। বিশ্বকাপের এই উত্তেজনা এবার টের পাবে টেনিস। চলতি বছর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে টেনিসের বিশ্বকাপ শুরু হচ্ছে।

কাগজে-কলমে না হলেও টেনিসের বিশ্বকাপ আগে ছিল। ডেভিস কাপ নামে। এবার সেই ডেভিস কাপের নিয়মেই বড় পরিবর্তন হচ্ছে। আর এই পরিবর্তন যার মস্তিষ্কপ্রসূত তার নাম জেরার্ড পিকে।

হ্যাঁ, বার্সেলোনার ফুটবলার জেরার্ড পিকে। তার মালিকানাধীন কসমস গ্রুপ এই নতুন উদ্যোগে বিনিয়োগ করছে। ডেভিস কাপ থেকে আনেকটাই আলাদা এই নতুন টুর্নামেন্ট। নতুন টুর্নামেন্ট নিয়ে আশাবাদী আন্তর্জাতিক টেনিস ফেডারেশনের সভাপতি ডেভিড হ্যাগার্টি। তার বক্তব্য, নতুন এই টেনিস বিশ্বকাপে বিনোদন থাকবে বেশি। ফলে টুর্নামেন্ট হবে অনেক বেশি আকর্ষণীয়।

১৯০০ সালে ডেভিস কাপের জন্ম। প্রথমে টুর্নামেন্টটি 'আন্তর্জাতিক লন টেনিস চ্যালেঞ্জ' নামে পরিচিত হলেও ১৯৪৫ সাল থেকে একে ডেভিস কাপ নামে ডাকা হয়। একে টেনিসের বিশ্বকাপ নামেই চেনে সবাই। মাত্র দুটি দেশ থেকে অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা এখন একশো ছাড়িয়েছে।

সেই ডেভিস কাপই নতুন করে শুরু হচ্ছে টেনিস ওয়ার্ল্ড কাপ নাম দিয়ে। মোট দেশের সংখ্যা হবে ১৮। এই ১৮ দল নির্বাচিত হওয়ার পদ্ধতিটাও একটু অন্যরকম। আগের বছরের চার সেমিফাইনালিস্ট সরাসরি বিশ্বকাপ খেলবে। তার সঙ্গে বাছাইপর্ব থেকে কোয়ালিফাই করা হবে ১২টি দল। সেই সঙ্গে দুটি দল পাবে ওয়াইল্ড কার্ড। ১৮ দলকে ছয় গ্রুপে বিভক্ত করা হবে।

৬ গ্রুপ সেরা ও ২ সেরা রানার্সআপ মিলে হবে কোয়ার্টার ফাইনাল। সেখান থেকে নকআউট ভিত্তিতে নির্বাচিত হবে বিশ্বকাপের সেরা চার দল, যারা নিশ্চিত করবে পরের বছরের বিশ্বকাপ। এক-একটি ম্যাচ হবে তিন সেটের। নভেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে টেনিসের বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হবে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech