‘কিছু নেতা-কর্মীর কারণে শেখ হাসিনাকে বিব্রত হতে হয়’

  

পিএনএস ডেস্ক : আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, ‘আমাদের দলের কিছু নেতা-কর্মীর কারণে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে বিব্রত হতে হয়। ওই সব নেতা-কর্মী লোভ লালসায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কথা ভুলে যায়। তৃণমূল থেকে শুদ্ধি অভিযান হবে।’

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে কুষ্টিয়া জেলা কৃষক লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে হানিফ এ কথা বলেন। কুষ্টিয়া জেলা স্টেডিয়ামের পাশে অনুষ্ঠিত এ সম্মেলনে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন।

বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যার প্রসঙ্গে টেনে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘হত্যাকারীদের পশুর সঙ্গেও তুলনা করা ঠিক হবে না। এতে পশুদেরও অপমান করা হবে। আমি ব্যথিত, আমি এই রাজনীতি চাই না। সংগঠন করতে হলে মানবিক হতে হবে। অন্যের সম্পদ ভোগ, জায়গা দখল করা চলবে না।’

আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে ঐক্যফ্রন্টের ভূমিকা নিয়ে মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ঐক্যফ্রন্ট আবরার ইস্যু নিয়ে মাঠে নেমে মাঠ গরম করতে চাচ্ছে। কিন্তু আওয়ামী লীগের লাখ লাখ নেতা-কর্মী তা হতে দেবে না।

উন্নয়নের সঙ্গে দুঃখ-কষ্টও আছে জানিয়ে হানিফ বলেন, শেখ হাসিনার সময়ে এই ১০ বছরে যে উন্নয়ন হয়েছে, বঙ্গবন্ধুর আমল ছাড়া কোনো সরকারই তার এক শ ভাগের দশ ভাগও করেনি। বিশ্বের কাছে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ কি কচু পাতার পানি যে টোকা দিলেই পড়ে যাবে? ধাক্কা দিয়ে পতন ঘটানো সম্ভব নয়।’

কেউ অনৈতিক কাজ করলে তার আশ্রয় দলে হবে না জানিয়ে মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ‘দলের মধ্যে আগাছা-পরগাছা দূর করা হবে।’

সম্মেলনে কুষ্টিয়া-১ (দৌলতপুর) আসনের সাংসদ আ ক ম সরওয়ার জাহান বলেন, ‘মুখে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কথা বলে বোয়াল মাছের মতো যা পাব তাই খাব, তা হবে না।’

পিএনএস-জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech