নির্বাচনে শেষমুহূর্ত পর্যন্ত মাঠে আছি, ব্রিটিশ হাইকমিশনারকে ড.কামাল

  

পিএনএস ডেস্ক: জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন বলেছেন, নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ এখনও তৈরি হয়নি এবং পুলিশ প্রশাসনের ভূমিকা পক্ষপাতমূলক।এ অবস্থায় অবাধ নির্বাচন নিয়ে সংশয় আছে। বাজে ভোট হলেও আমরা মাঠ ছাড়বো না, নির্বাচনে আমরা আছি। যে পরিস্থিতিই আসুক না কেন নির্বাচনের শেষমুহূর্ত পর্যন্ত মাঠে থাকব।

সোমবার রাতে রাজধানীর বেইলি রোডে নিজ বাসভবনে ব্রিটিশ হাইকমিশনার অ্যালিসন ব্ল্যাকের সঙ্গে বৈঠকে এসব কথা বলেন ড. কামাল।

এর আগে ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে দেখা করতে তার বাসভবনে যান ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার। উভয়ে প্রায় এক ঘণ্টা বৈঠক করেন। পরে বৈঠকের আলোচনা সম্পর্কে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন ড. কামাল।

তিনি বলেন, ব্রিটিশ সরকারের পক্ষ থেকে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি তিনি জানতে চেয়েছেন। বিশেষ করে জানতে চেয়েছেন, কী ধরনের নির্বাচন হতে যাচ্ছে। আমরা তাকে জানিয়েছি, ঐক্যফ্রন্ট নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন চায়। সেই লক্ষ্যে সাত দফা দাবিও সরকারকে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু আমাদের দাবিকে পাশ কাটিয়ে নির্বাচনে সব অয়োজন চলছে।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ এই নেতা বলেন, ব্রিটিশ হাইকমিশনারকে জানানো হয়েছে। সরকার অনেকভাবে নিরপেক্ষ করা যায়, তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা ছাড়াও। এটা আমাদের সংলাপে বলেছি। কিন্তু আমাদের প্রধান দাবিগুলোতে কর্ণপাত করছে সরকার। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পরও পুলিশকে যেভাবে দলীয় বাহিনী হিসাবে করা হয়েছে , তাতে আমরা উদ্বিগ্ন। তাই বলে আমরা নির্বাচন বয়কট করতে রাজি না, বাজে ইলেকশন হলেও আমরা করব।’

ব্রিটিশ হাইকমিশনারের কাছে ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে ১৫৪ জন বিনা ভোটে নির্বাচিত হওয়ার বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে জানিয়ে ড. কামাল বলেন, ৫ জানুয়ারির পর নির্বাচিত সরকার না থাকার কারণে দেশের অনেক ক্ষতি হয়েছে। বয়কট করা নির্বাচন নিয়ে তারা পাঁচ বছর চালিয়ে নিল এটা তো নজিরবিহীন। আমাদের ইতিহাসে এমন ঘটনা ঘটেনি।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech