গার্মেন্টসের আড়ালে চলতো সাপের বিষের ব্যবসা!

  

পিএনএস ডেস্ক: গার্মেন্টস ব্যবসার আড়ালে সাপের বিষ ক্রয়-বিক্রয়ের অভিযোগে গাজীপুর মহানগরে অভিযান চালিয়ে এক পোশাক ব্যবসায়ীসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রো (পশ্চিম) সিআইডি পুলিশের সদস্যরা।

তাদের কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা মূল্যের ১৬৩ গ্রাম সাপের বিষ জব্দ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃততা হলেন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর থানার আগতোরিলা গ্রামের গার্মেন্টস ব্যবসায়ী মো. বদরুল আলম (৪২), একই জেলার দেলদুয়ার থানার পাহাড়পুর গ্রামের মো. মোনায়েম (৫২) ও গাজীপুর মহানগরের কাউলতিয়ার মীরেরগাঁও এলাকার মো. বদরুল আলম। তাদের আদালতের মাধ্যমে শুক্রবার কারাগারে পাঠানো হয়।

ঢাকা মেট্রো (পশ্চিম) সিআইডি পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জাকির হোসাইন জানান, গাজীপুর মহানগরের বাসন থানাধীন চান্দনা-চৌরাস্তা এলাকার রহমত টাওয়ারের চতুর্থ তলায় তাজ এপারেলস নামের পোশাক কারখানার অফিসে সাপের বিষ কেনা-বেচা হচ্ছে বলে খবর পাওয়া যায়। খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালানো হয়। পরে তাজ এপারেলসের মালিক বদরুল আলমের অফিসকক্ষে অভিযান চালিয়ে ওই তিনজনকে আটক করা হয়।

তারা দেশ বিদেশ থেকে সাপের বিষ ক্রয় বিক্রয়ের কথা স্বীকার করেছে। পরে তাদের ওই অফিসকক্ষে তল্লাশি চালিয়ে তিনটি কাঁচের পাত্রে 'মেইড ইন ফ্রান্স' ও 'কোবরা স্ন্যাক পয়জন' লেখা ১৬৩ গ্রাম সাপের বিষ জব্দ করা হয়। যার আনুমানিক মূল্য ১০ লাখ টাকা।

বাসন থানার ওসি মো. রফিকুল ইসলাম জানান, ঢাকা মেট্রো (পশ্চিম) সিআইডি পুলিশের উপ-পুলিশ পরিদর্শক মো. গোলাম মাওলা বাদী হয়ে বাসন থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করেছেন। শুক্রবার তাকে আদালতের মাধমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন