পাটুরিয়া ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় ৬ শতাধিক ট্রাক

  

পিএনএস ডেস্ক : পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুটে নাব্যতা সঙ্কট ও যানবাহন বৃদ্ধির কারণে ঘাট এলাকায় ৬ শতাধিক ট্রাক ফেরি পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। শুক্রবার ঘাটে এমন চিত্র দেখা গেছে।

পাটুরিয়া ফেরিঘাটের বেসিনে দীর্ঘ দেড় মাস ধরে নাব্যতা সঙ্কটের কারণে স্বাভাবিকভাবে ফেরি চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে। ঘাটের বেসিনে ড্রেজার দিয়ে পলি অপসারণ করায় শুক্রবার সকাল থেকে পাটুরিয়ার ৪ নম্বর ফেরিঘাট বন্ধ রয়েছে। এছাড়া ঘাট এলাকায় ড্রেজিং করায় ফেরিগুলো ঘাটে ভিড়তে সময় বেশি লাগছে। সরাসরি ফেরিঘাটে ভিড়তে পারছে না।

এদিকে গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকে কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌ-রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় ওই যানবাহনগুলো পাটুরিয়া ঘাট দিয়ে পারাপার হচ্ছে। এতে ঘাট এলাকায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

বিআইডব্লিউটিসি আরিচা অফিস সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকাল থেকে কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌ-রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় দুপুরের পর থেকে যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পেতে থাকে।
এদিকে পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় যানজট দেখা দেয়ায় বিআইডব্লিউটিসির কর্তৃপক্ষ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যাত্রীবাহী বাস ও কোচ আগে পারাপার করছে। এ কারণে পণ্যবাহী ট্রাকের চালকদের ঘাটেই পড়ে থাকতে হচ্ছে।

এর ফলে ফেরি পারাপার হতে ঘাটে আসা ট্রাক চালকদের পারাপারের জন্য গত বৃহস্পতিবার থেকে শুক্রবার পর্যন্ত দুইদিন ধরে অপেক্ষায় থেকে দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। এ নৌ-রুটে চলাচলরত ১৯টি ফেরির মধ্যে ফেরি কেতকী বিকল হয়ে পড়ে থাকায় ১৮টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার হচ্ছে।

ঢাকার আরামবাগ থেকে ছেড়ে আসা রাজবাড়ীগামী ট্রাকচালক দিলিপ শেখ জানান, সে বৃহস্পতিবার সকালে পাটুরিয়া ঘাটে আসে। কিন্ত পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুটে নাব্যতা সঙ্কট ও যানবাহনের চাপ বৃদ্ধির কারণে ঘাটে যানজটের সৃষ্টি হয়। যানজটের কারণে আজ শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত অপেক্ষায় থেকেও ফেরির টিকিট পাননি। এরকম প্রায় ৬ শতাধিক ট্রাক পারাপারের অপেক্ষায় ঘাট এলাকায় পড়ে রয়েছে।

আরিচা অফিসের বিআইডব্লিউটিসির ডিজিএম জিল্লুর রহমান জানান, এ নৌ-রুটের পাটুরিয়া ফেরিঘাটের বেসিনে নাব্যতা সঙ্কট ও কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌ-রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ থাকায় যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পায়। এতে ঘাটে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

পিএনএস/এসআইআর


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন