ঔষাধাগারের পরিচালক পদে এমন নিয়োগ গ্রহণযোগ্য নয়: বিএমএ

  

পিএনএস ডেস্ক : কেন্দ্রীয় ঔষধাগারের পরিচালক পদে প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তাকে নিয়োগে উদ্বেগ জানিয়েছে বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশেন (বিএমএ) ও স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ)। শনিবার এক যৌথ চিঠিতে সংগঠন দুটির পক্ষ থেকে ওই পদে চিকিৎসক কর্মকর্তা নিয়োগের দাবি জানানো হয়েছে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় বরাবর ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, বিএমএ ও স্বাচিপ জানতে পেরেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে প্রশাসন ক্যাডারের একজন অতিরিক্ত সচিবকে ক্রেন্দ্রীয় ঔষাধাগারের পরিচালক (সিএমএসডি), প্রেষণে নিয়োগ দেয়া হয়েছে, বিষয়টি অত্যন্ত উদ্বেগের। কারণ প্রশাসন ক্যাডারের একজন কর্মকর্তা স্বাস্থ্য ব্যবস্থার যাবতীয় চিকিৎসা সামগ্রী ক্রয়ের সাথে কোনোভাবেই সম্পৃক্ত নন। আমাদের জানামতে আজ পর্যন্ত উক্ত পদে চিকিৎসক কর্মকর্তা ব্যতীত কখনো পদায়িত করা হয়নি। নিকট অতীতে উক্ত পদে সামরিক বাহিনীর জ্যেষ্ঠ চিকিৎসক কর্মকর্তারাই ধারাবাহিকভাবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

এতে আরো বলা হয়, দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে প্রশাসন ক্যাডারের একজন কর্মকর্তাকে এই পদে নিয়োগ কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয় এবং ইহা একটি অশনি সংকেতের ইঙ্গিত বহন করছে। একই এ আদেশ প্রত্যাহার করে একজন চিকিৎসা কর্মকর্তাকে নিয়োগ দেয়ার দাবি জানানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত কেন্দ্রীয় ঔষধাগারের (সিএমএসডি) পরিচালকে পরিবর্তন করে তার স্থানে বাংলাদেশ জাতীয় ইউনেস্কো কমিশনের ডেপুটি সেক্রেটারি জেনারেল (অতিরিক্ত সচিব) আবু হেনা মোরশেদ জামানকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

শুক্রবার এই সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। সাবেক পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ শহীদ উল্লাহকে সেনাবাহিনীতে ফেরাতে তার চাকরি সশস্ত্র বাহিনী বিভাগে ন্যস্ত করা হয়েছে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন