চীন-সিঙ্গাপুর থেকে ফিরলেই সন্দেহ নয়: আইইডিসিআর

  

পিএনএস ডেস্ক : চীন ও সিঙ্গাপুরফেরত সবাইকে করোনাভাইরাস সংক্রমিত হিসেবে সন্দেহ না করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন সরকারের জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)।

রোববার আইইডিসিআর কার্যালয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে সংস্থার পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, চীনের সব প্রদেশে করোনার প্রাদুর্ভাব ঘটেনি। যেসব অঞ্চলে মহামারি আকার ধারণ করেছে, চীন সরকারই সেগুলো যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে রেখেছে। সিঙ্গাপুরও একই কাজ করছে। সুতরাং, এই দুই দেশ থেকে আসা যাত্রীদের ঢালাওভাবে করোনাভাইরাস আক্রান্ত হিসেবে সন্দেহ করা সমীচীন নয়।

সরকারিভাবে দেশের সর্বত্র সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে ডা. ফ্লোরা বলেন, চীন ও সিঙ্গাপুরফেরত যাত্রীদের মধ্যে যারা জ্বর ও হাঁচি-কাশিতে ভুগছেন, তাদের আইসোলেশন করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। একই সঙ্গে নমুনাও পরীক্ষা করা হচ্ছে। অন্যদের বাড়িতে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এই দুই দেশের বাইরেও বিদেশফেরত সব যাত্রীকে স্ক্রিনিং করা হচ্ছে।

পরিচালক বলেন, চীন ও সিঙ্গাপুরফেরত যাত্রীরা অন্যদের আচরণের কারণে ব্যক্তিগত ও সামাজিক নিরাপত্তার অভাব অনুভব করলে সেবা নিতে হাসপাতালে যেতে নিরুৎসাহিত হবেন। এতে করে শনাক্তকরণ কার্যক্রম বিঘ্নিত হবে। ফলে সবার ঝুঁকি বাড়বে। সুতরাং, এ বিষয়ে সবার সহযোগিতার প্রয়োজন।

সিঙ্গাপুরে আক্রান্ত বাংলাদেশি নাগরিকদের বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরে তিনি বলেন, সেখানে এখন পর্যন্ত পাঁচ বাংলাদেশি নাগরিক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন আইসিইউতে আছেন। অন্যরা হাসপাতালে সাধারণভাবে চিকিৎসাধীন। এ ছাড়া আরও ৫ বাংলাদেশি কোয়ারেন্টাইনে আছেন।

ডা. ফ্লোরা বলেন, দেশে এ পর্যন্ত ৬৬ জনের নমুনা পর্যালোচনা করা হয়েছে। কিন্তু তাদের কারও মধ্যে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া যায়নি।

এদিকে চীনের উহান থেকে ফেরা ৩১২ জনের সবাই বাড়ি ফিরেছেন। গত শনিবার তাদের কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদ শেষ হয়। স্বাস্থ্য পরীক্ষাসহ বিভিন্ন প্রক্রিয়া শেষ করতে রাত হয়ে যাওয়ায় সবাই বাড়ি ফিরতে পারেননি। প্রায় দুইশ'র মতো চীনফেরত যাত্রী শনিবার রাতে এবং বাকিরা রোববার বাড়ি ফেরেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আইইডিসিআরের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এসএম আলমগীর বলেন, উহানফেরতরা সবাই সুস্থ আছেন, ভালো আছেন। বাড়ি ফিরে অনেকে ফোন করে ভালো আছেন বলে জানিয়েছেন। কোনো সমস্যা অনুভব করলে তাদের ফোন করতে বলা হয়েছে।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন