অবসরে গেলেন সিআইডির তিন অতিরিক্ত ডিআইজি

  

পিএনএস ডেস্ক : অবসরে গেলেন সিআইডির তিন অতিরিক্ত ডিআইজি। আজ শনিবার সিআইডির সদর দপ্তরে তাদের বিদায় সংবর্ধনা দেয়া হয়।

অবসরে যাওয়া তিন কর্মকর্তা হলেন-এস এম কামাল হোসেন, রওশন আরা বেগম ও মো. জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়া।

সিআইডির জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার শারমিন জাহান জানান, বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সিআইডি প্রধান অতি. আইজিপি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত সিআইডির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা বিদায়ী কর্মকর্তাদের বর্ণাঢ্য কর্মজীবন নিয়ে স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য দেন।

শারমিন জাহান বলেন, অনুষ্ঠানে সিআইডি প্রধান বিদায়ী কর্মকর্তাদের সম্মানসূচক ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট প্রদান করেন। এ সময় দীর্ঘ কর্মজীবনে সততা, নিষ্ঠা, দক্ষতা ও পেশাদারিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে বাংলাদেশ পুলিশের ভাবমূর্তি উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখার জন্য তাদেরকে ধন্যবাদ জানান সিআইডি প্রধান। তিনি তাদের অবসরকালীন জীবনের সর্বাঙ্গিন সুস্থতা ও সফলতা কামনা করেন।

জানা যায়, বিদায়ী তিনজন অতি. ডিআইজির মধ্যে জনাব এস এম কামাল হোসেন, ১৯৮৮ সালের ১৫ই ফেব্রুয়ারি বিসিএস (পুলিশ) ৭ম ব্যাচে শিক্ষানবিশ এএসপি হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন। কর্মজীবনে তিনি এএসপি (প্রবি) হিসেবে টাঙ্গাইল জেলায়, এএসপি হিসেবে সুনামগঞ্জ ও সিলেট জেলায়, এসপি হিসেবে সিএমপি, চট্রগ্রাম জেলা, সুনামগঞ্জ জেলা, আরআরএফ রাজশাহী, দিনাজপুর জেলা, পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে এবং অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবে (যুগ্ন পুলিশ কমিশনার) ডিএমপি ঢাকা, পিটিসি রংপুর, (কমান্ড্যান্ট), র্যাব ফোর্সেস হেডকোয়ার্টার্স, হাইওয়ে পুলিশে দক্ষতা সততার সঙ্গে চাকরি করেন।

এছাড়া, রওশন আরা বেগম ১৯৮৮ সালের ১৫ই ফেব্রুয়ারি বিসিএস (পুলিশ) ৭ম ব্যাচে শিক্ষানবীশ এএসপি হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন। তিনি কর্মজীবনে এএসপি হিসেবে যশোর জেলা, অতিরিক্ত এসপি হিসেবে সাতক্ষীরা জেলা এবং সিআইডি ঢাকা/চট্রগ্রাম জোনের দায়িত্ব পালন করেন। পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত হয়ে তিনি গাইবান্ধা ও মৌলভীবাজার জেলায় দীর্ঘ সাত বছর দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে তিনি নবম এপিবিএন ঢাকা এর কমান্ড্যান্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করা অবস্থায় ২০০৬ সালে অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত হন। তিনি অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবে রেলওয়ে এবং র্যাব সদর দপ্তর ঢাকায় পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

অন্যদিকে মো. জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়া ১৯৮৯ সালের ২০ শে ডিসেম্বর বিসিএস (পুলিশ) ৮ম ব্যাচে শিক্ষানবীশ এএসপি হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন। তিনি যশোর ও ঢাকা জেলার পুলিশ সুপারসহ বিভিন্ন ইউনিটে চাকরির পাশাপাশি পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের এআইজি ক্রাইম-১, এআইজি ক্রাইম-২, অতিরিক্ত ডিআইজি স্পেশাল ক্রাইম হিসেবে দক্ষতা ও সততার সাথে চাকরি করেন। তিনি ২০১২ সনে ১লা নভেম্বর অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন। তিনি ২০১৬ সালে ৩১শে অক্টোবর হতে সিআইডি ঢাকায় কর্মরত ছিলেন।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech