মৌসুমের বাইরে লবণ চাষিদের জন্য বিকল্প ব্যবস্থা করা হবে

  



পিএনএস ডেস্ক: মৌসুমের বাইরে লবণ চাষিদের জন্য বিকল্প পেশার বিধান রেখে ‘আয়োডিন যুক্ত লবণ আইন- ২০২০’ এর খসড়া নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সোমবার (২০ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়।

বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণের গলগণ্ড রোগসহ আয়োডিনের অভাবজনিত নানাবিধ রোগ বিবেচনায় লবণে আয়োডিন মিশ্রণ সংক্রান্ত আয়োডিন অভাবজনিত রোগ প্রতিরোধ আইন-১৯৮৯ প্রণয়ন করা হয়েছিল। ভোজ্য লবণে আয়োডিনযুক্তকরণ এবং মানুষ ও অন্যান্য প্রাণীর খাদ্য তৈরিতে আয়োডিনযুক্ত লবণ ব্যবহার নিশ্চিতের মাধ্যমে দেশের আয়োডিনযুক্ত লবণ খাতের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় বিদ্যমান আইনটি প্রয়োজনীয় সংশোধন করে যুগোপযোগী করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।’

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘আইনটিতে ১৩টি অধ্যায় ও ৫৩টি ধারা রয়েছে। প্রস্তাবিত আয়োডিনযুক্ত লবণ আইনের উল্লেখযোগ্য বিষয়গুলো হচ্ছ- জাতীয় আয়োডিনযুক্ত লবণ কমিটি গঠন, পর্যবেক্ষণ ও বাস্তবায়ন সেল গঠন, লবণ উৎপাদনকারীদের প্রশিক্ষণ প্রদান।’

এছাড়া লবণ চাষিদের লবণ মৌসুম ছাড়া অন্য সময়ে বিকল্প পেশার বিধান রেখে লবণ তথ্য কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা, লবণ গবেষণা ইনস্টিটিউট স্থাপন ও মোবাইল কোর্ট আইন-২০০৯ এর প্রয়োগের বিষয়টিও খসড়া আইনে রয়েছে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

মন্ত্রিসভা বৈঠকে ‘চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ আইন-২০২০’ এর খসড়া নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে প্রতি বছর ৬ এপ্রিল আন্তর্জাতিক ক্রীড়া দিবসের পাশাপাশি ‘জাতীয় ক্রীড়া দিবস’ উদযাপনের প্রস্তাব মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিয়েছে বলে জানান তিনি।

পিএনএস/হাফিজ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন