সাবেক ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী ব্যারিস্টার আমিনুল হক আর নেই

  

পিএনএস, তানোর (রাজশাহী) সংবাদদাতা : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান, সাবেক ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী এবং রাজশাহী-১ (তানোর-গোদাগাড়ী) আসনের সাবেক এমপি ব্যারিস্টার আমিনুল হক আর নেই (ইন্নালিল্লাহে... রাজিউন)। তিনি আজ রবিবার সকাল ১০.১৫ মিনিটে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন। তিনি এক ছেলে ও এক মেয়ে, স্ত্রীসহ অনেক গুহগ্রাহী রেখে গেছেন। রাজশাহীর জেলার গোদাগাড়ী উপজেলার ডাংপাড়া গ্রামে তিনি জন্মগ্রহণ করেন।

জানা গেছে, আমিনুল হকের লাশ রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার ডাংপাড়া গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে সোমবার দাফন করা হবে।

মেয়র মিজানুর রহমান জানান, ব্যারিস্টার আমিনুল হক দীর্ঘদিন হাই প্রেসার, শ্বাসকষ্টসহ বিবিধ রোগে ভুগছিলেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে একাধিকবার চিকিৎসা করাতে সিঙ্গাপুর গিয়েছেন। সর্বশেষ নির্বাচনের পর তিনি আবারও চিকিৎসা করাতে সিঙ্গাপুরের মাউথ এলিজাবেথ হাসপাতালে ভর্তি হন। তার অবস্থা সংকটাপন্ন হলে পরে তাকে দেশে এনে ঢাকার ইউনাইটেড হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়।

উল্লেখ্য, ব্যারিস্টার আমিনুল হক রাজশাহী-১ (তানোর-গোদাগাড়ী) আসন থেকে বিএনপির মনোনয়নে তিনবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি ১৯৯১ থেকে ২০০৭ সালের তত্ত্ববধায়ক সরকারের আগে পর্যন্ত এমপি ও মন্ত্রী ছিলেন। বেগম খালেদা জিয়ার মন্ত্রীসভায় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন।

শোক প্রকাশ
আমিনুল হকের মৃত্যুতে তানোর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোজাম্মেল হক খান, তানোর পৌর মেয়র ও উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তাঁর মৃত্যুতে উপজেলা বিএনপি ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মাঝে শোকের মাতম বইছে।

পিএনএস/মো: শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech