কান, জিহ্বা কেটে পাখি হওয়ার চেষ্টা!

  

পিএনএস ডেস্ক: এই ধরাধামে শখের বশবতী হয়ে মানুষ কত কিছুই না করে। এই শখই কখনও কখনও মানুষকে বিশ্বজোড়া খ্যাতি এনে দিয়েছে, আবার মানুষের শখই মানুষকে ডুবিয়েছে অতল গহ্বরে। তবু মানুষের শখ তো শখই। প্রত্যেক মানুষের আলাদা আলাদা শখ থাকে যা তাকে সকলের কাছে নতুন পরিচয় দান করে। তেমনই পাখি হওয়ার ইচ্ছা পূরণ করতে নিজের কান কেটে, জিহ্বা চিরে ও নাক বড় করেছেন ওয়েকি টেড রিচার্ডস(৫৬) নামের এক ব্যক্তি। পাখিপ্রেমিক রিচার্ডসের বসবাস যুক্তরাজ্য। খবর দ্য মিরর এর।

মিরর বলছে, যুক্তরাজ্যের এই পাখিপ্রেমিক ব্যক্তিগত জীবনে একটি জুতার কারখানায় কাজ করতেন। চাকরি থেকে অবসর নেয়ার পর তিনি পাখির সন্ধানে পৃথিবীর নানা দেশ ঘুরে বেড়িয়েছেন। ২০০৭ সাল থেকে নিজের বাড়িতে পাখি পোষার পাশাপাশি নিজেকে পাখির মতো করে সাজাতে শুরু করেন তিনি। তার স্ত্রী স্টেলাও এরই মধ্যে নিজেকে পাখির মতো করে সাজানোর কাজ শুরু করেছেন।

পাখির বেশে নিজেকে দেখতে চান বলে; ছয় ঘণ্টার অস্ত্রোপচারে রিচার্ডসের শরীর থেকে কান কেটে নিয়েছে চিকিৎসকরা। আর বিশেষ আরেক অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে নাকটিকে বড় করিয়ে নিয়েছেন তিনি। এখন এমন একজন শল্যচিকিৎসক খুঁজছেন যিনি তার নাকটিকে পাখির মতো বাঁকা করে দিতে পারবেন।

কান কাটা, নাক বড় করা ও আর গায়ে আঁকানো ১১০টি ট্যাটু কেউ কেউ উপভোগ করলেও অনেকেই তার সমালোচনা করেছেন। তবে রিচার্ডস শুধু তার কান কাটার পেছনে যুক্তি দাঁড় করিয়েছেন।

এতদিন ধরে বড় বড় চুলে কান এমনিতেই ঢাকা থাকত। দেখা তো যেতই না। তাহলে কান দুটো কেটে ফেলতে বাধা কোথায় বলেন তিনি ।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech