ঈদের পর খুলছে অধস্তন আদালত: আইনমন্ত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক: চার মাসের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর ঈদুল আজহার ছুটি শেষে দেশের অধস্তন আদালত খুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

বিবিসি বাংলাকে তিনি বলেন, এ নিয়ে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের সঙ্গে কথা হয়েছে। তবে উচ্চ আদালতের নিয়মিত কার্যক্রম চালুর বিষয়ে প্রধান বিচারপতি সিদ্ধান্ত দেবেন বলে জানান আইনমন্ত্রী।

আগামী শনিবার (১ আগস্ট) দেশে ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে। এ উপলক্ষে ৩১ জুলাই থেকে ২ আগস্ট পর্যন্ত সরকার ঘোষিত ছুটি থাকবে। নিয়মিত আদালত চালু করতে অনেকদিন ধরে আইনজীবীদের তুমুল দাবির মুখে আইনমন্ত্রীর এ ঘোষণা এলো।

আনিসুল হক বলেন, আমরা এই ধারণায় উপনীত হয়েছি যে, আমাদের করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) এর সঙ্গে বসবাস করতে হবে। সেজন্য আমি যতদূর জানি, মাননীয় প্রধান বিচারপতির সঙ্গে আমার শেষ যে আলাপ হয়েছে, তাতে ঈদের পরে স্বাভাবিক আদালতগুলো (অধস্তন আদালত) খুলে দেওয়া হবে।

তিনি জানান, ফৌজদারি মামলার বিচারিক কাজে বা সাক্ষ্যগ্রহণ প্রক্রিয়ায় কিছু বাধ্যবাধকতা থাকতে পারে। কিন্তু দেওয়ানি মামলায় সেটা নাও থাকতে পারে।

এর কারণ হিসেবে আইনমন্ত্রী বলেন, যেসব আসামি কারাগারে রয়েছেন, এখন পর্যন্ত আমাদের কারাগারগুলোতে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ হয়নি এবং আমরা এই অবস্থায় রাখতে চাই। আদালতের সেই কাজটা কীভাবে করবো, আইনের কী পরিবর্তন লাগবে, সেদিকে আমরা এগিয়ে যাবো।

তিনি বলেন, কিন্তু অন্যান্য কাজের সবকিছুই স্বাভাবিকভাবে, সাধারণ আদালতের যেভাবে কাজ হচ্ছিল, সেই ভাবেই হবে। সেটা ঈদের পরেই খুলে দেওয়া হবে।

আনিসুল হক বলেন, হাইকোর্ট বা সুপ্রিম কোর্ট কবে খুলবে বা কীভাবে চলবে, সে ব্যাপারে প্রধান বিচারপতি সিদ্ধান্ত নেবেন।

করোনা সংক্রমণ রোধে গত মার্চের শেষ সপ্তাহে আদালতসহ সকল ক্ষেত্রে ছুটির ঘোষণার পর ভার্চুয়াল আদালতের কার্যক্রম শুরু হয় গত ১১ মে। এর আগে গত ৯ মে ‘আদালত কর্তৃক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার অধ্যাদেশ-২০২০’ জারি করার পর অধস্তন আদালতে হাজতি আসামিদের জামিন শুনানি শুরু হয়।

গত ৮ জুলাই প্রয়োজন অনুসারে ভার্চুয়াল আদালত চালানোর বিধান রেখে সংসদে এ সংক্রান্ত আইন পাস হয়। গত ৩০ মে শেষ হলেও উচ্চ ও অধস্তন আদালতে নিয়মিত বিচার কার্যক্রম এখনও শুরু হয়নি। তবে, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশনায় অধস্তন বিভিন্ন আদালতে আত্মসমর্পণ ও নালিশি মামলাসহ দেওয়ানি ও উত্তরাধিকার মামলার আবেদন গ্রহণ ও শুনানি হচ্ছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন