হোটেলে আটকে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ, যুবলীগ নেতা বহিষ্কার

  



পিএনএস ডেস্ক: মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার একটি হোটেলে অনৈতিক কাজের সময় পুলিশের হাতে গ্রেফতার যুবলীগ নেতা কাউসার আহমেদকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে তাকে আদালতে নেয়া হলে জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক। এ ঘটনায় কাউসারকে দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

উপজেলার মহাদেব ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কাউসারের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে বুধবার রাতে মামলা করেছেন এক কলেজছাত্রী।

শিবালয় থানা পুলিশের ওসি মিজানুর রহমান বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার দুপুরে পাটুরিয়া ঘাটের পদ্মা রিভারভিউ আবাসিক হোটেলের ৯০৩ নম্বর রুম থেকে অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকার সময় কলেজছাত্রীসহ কাউসার আহম্মেদকে গ্রেফতার করা হয়। রাতে ওই কলেজছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেছেন।

বৃহস্পতিবার দুপরে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়। এরপর আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন কলেজছাত্রী। কাউসারকে আদালতে তোলা হলে বিচারক জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠান।

মামলায় কলেজছাত্রী উল্লেখ করেছেন, ফেসবুকের মাধ্যমে কাউসারের সঙ্গে তার পরিচয়। কাউসার তাকে ফুঁসলিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেছেন। বুধবার তাকে পদ্মা রিভারভিউতে নিয়ে একটি কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করেন কাউসার।

শিবালয় উপজেলা যুবলীগ আহ্বায়ক মিরাজ হোসেন লালন বলেন, কাউসারের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। তাকে বৃহস্পতিবার দলীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

পিএনএস/ হাফিজ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech