তাহেরিকে নিয়ে অনুসন্ধান করছে পুলিশ

  

পিএনএস ডেস্ক : মুফতি গিয়াসউদ্দিন আত তাহেরি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বহুল আলোচিত-সমালোচিত নাম। 'খাবেন?' 'ঢেলে দেই?' ‘ভাই পরিবেশটা সুন্দর না? কোনো হইচই আছে? এসব বলে ওয়াজের মধ্যে অপ্রাসঙ্গিক ও আপত্তিকর অঙ্গভঙ্গি করেন।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা বলছেন, তাহেরি কে, কেন তিনি এ ধরণের অঙ্গভঙ্গি করছেন বা অশালীন বক্তব্য দিচ্ছেন তার তথ্য নিয়ে কাজ শুরু হয়েছে। তিনি রয়েছেন নজরদারিতে। ওয়াজের নামে এ ধরণের অশ্লীল কথা বলা যায় না। এর সঙ্গে ধর্মীয় অনুভূতি জড়িত।

বুধবার দুপুরে ঢাকায় পুলিশ হেডকোয়াটার্স- এর এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা বলেন, ‘আমরাও এমনটি দেখেছি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ধরণের বক্তব্য দিয়ে তিনি আসলে কি বোঝাতে চাচ্ছেন সে বিষয়ে পুলিশ খোঁজখবর নিচ্ছে।’

এর আগে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (রাজনৈতিক ও আইসিটি) আবু বকর ছিদ্দীক গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘যে কোনো ওয়াজ ও ওয়াজের বক্তাকে নিয়মিত ফলোআপ করা হয়। এ নিয়ে কাজ করছে সাইবার সেল। তারা রিপোর্ট করলে তাহেরির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

গোয়েন্দাদের কাছে তথ্য আছে, মুফতি মুহম্মদ গিয়াস উদ্দিন আত তাহেরি দাওয়াতে ‘ঈমানী বাংলাদেশ’ নামের একটি সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান। তার বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। রায়পুরার মাস্তানগঞ্জ নামক একটি মহল্লায় খাজা বাবার দরবার নাম দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে একটি আস্তানা চালিয়ে যাচ্ছেন। সেখানেই তিনি ওয়াজ করেন এবং অশালীন বক্তব্য রাখেন।

গোয়েন্দারা জানান, এটিই প্রথম নয়। এর আগেও 'বসে যান, বসে যান' সুর দিয়ে নাচের ভঙ্গিতে ওয়াজ করেন তাহেরি। সে সময় আপত্তির মুখে তার ওয়াজ কিছুদিন বন্ধ রাখা হয়।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech