ওয়াজের ময়দান কি জান্নাতের বাগানের মতো?

  

পিএনএস ডেস্ক:নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় বেসরকারি একটি টেলিভিশনের জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দর্শকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ।

প্রশ্ন : হুজুররা বলেন যে, যেখানে ওয়াজ হয়, সেটা জান্নাতের বাগান হয়ে যায় এবং রহমতের ফেরেশতারা তাঁদের পাহারা দেন। এটা কি সত্য ?

উত্তর : না, ফেরেশতাদের ব্যাপারে সহিহ মুসলিমে যে বর্ণনাটি এসেছে সেটি হচ্ছে- ফেরেশতারা তাঁদের আচ্ছাদিত করে রাখেন এবং আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের রহমত তাঁদের ওপর অবতীর্ণ হয়, এ কথা ঠিক আছে।

কিন্তু এটি জান্নাতের বাগানে পরিণত হয়, এমন সুস্পষ্ট বক্তব্য ওই হাদিসের মধ্যে নেই। এটি হয়তো কেউ ইশতেহাদ করেছেন, ব্যাক্তিগত গবেষণা করেছেন যে, এটি জান্নাতের বাগানে পরিণত হয়।

তবে একথা সত্য যে, ফেরেশতারা তাঁদের আচ্ছাদিত করেন এবং তাঁদের ওপর রহমত অবতীর্ন হয়ে থাকে। তাঁদের বিষয়ে আল্লাহ রাব্বুল আলামিন উচ্চ পর্যায়ের ফেরেশতাদের সাথে আলোচনা করেন। এটি যে একটি মর্যাদার বিষয় এতে কোনো সন্দেহ নেই।

যেহেতু এলমের কোনো মজলিশ হলে সেটি আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে প্রিয় মজলিশ, রাসুলের (সা.)কাছে প্রিয় মজলিশ, তাই রাসুল (সা.) হাদিসের মধ্যে এর মর্যাদার কথা উল্লেখ করেছেন, এই হাদিসটি সহিহ মুসলিমের মধ্যে এসেছে।

পিএনএস/আলআমীন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech