নেতৃত্বের চ্যালেঞ্জে টিকে গেলেন পেরুর প্রেসিডেন্ট

  

পিএনএস ডেস্ক : পার্লামেন্টে বিরোধী আইনপ্রণেতাদের ডাকা অভিশংসন ভোটে টিকে গেছেন পেরুর প্রেসিডেন্ট মার্টিন ভিজকারা। শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) ১০ ঘণ্টা ধরে বিতর্কের পর মাত্র ৩২ জন আইনপ্রণেতা তাকে অভিশংসিত করার পক্ষে ভোট দিয়েছেন। বিপক্ষে ভোট দিয়েছেন ৭৮ জন। ১৫ জন আইনপ্রণেতা ভোটদানে বিরত ছিলেন। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

মোটিভেশনাল কথাবার্তা বলার জন্য স্বল্প পরিচিত সংগীতশিল্পী রিচার্ড চিসনেরোস-এর সঙ্গে সাড়ে ৪৯ হাজার ডলার মূল্যের একটি চুক্তি করেছিল পেরুর সরকার। এতে জালিয়াতির ঘটনা তদন্ত করছে কংগ্রেস ও পেরুর অডিটর জেনারেল।এর সঙ্গে প্রেসিডেন্টের সংযোগ রয়েছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। সম্প্রতি ফাঁস হওয়া এক অডিও টেপেও ভিজকারা ও সরকারি কর্মকর্তাদেরকে ওই সংগীতশিল্পীর সঙ্গে কথা বলতে শোনা গেছে। তবে তা অস্বীকার করেছেন ৫৭ বছর বয়সী পেরুর প্রেসিডেন্ট মার্টিন ভিজকারা।

এমন অবস্থায় ভিজকারাকে ‘নৈতিক অক্ষমতা’ জনিত কারণে অভিশংসিত করা হবে কিনা তা নিয়ে পার্লামেন্টে বিতর্ক ও ভোটাভুটির আয়োজন করা হয়। তাকে অভিশংসন করতে ১৩০ সদস্যবিশিষ্ট পার্লামেন্টে ৮৭ ভোটের প্রয়োজন হতো। তখনই কেবল প্রেসিডেন্ট ভিজকারাকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া সম্ভব হতো।

এর আগে গত বছরের সেপ্টেম্বরেও অভিশংসন প্রক্রিয়ার মুখোমুখি হয়েছিলেন পেরুর প্রেসিডেন্ট।

পিএনএস/এসআইআর


 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন