‘বিক্ষোভে ব্রেন ও ধৈর্য্য ব্যবহার করতে হবে’

  


পিএনএস ডেস্ক: জামিনে মুক্তি পেয়েছেন হংকংয়ের মিডিয়া ব্যক্তিত্ব জিমি লাই। বলেছেন, তাদেরকে প্রতিবাদ বিক্ষোভের ক্ষেত্রে আরো সতর্ক হতে হবে। কারণ, নতুন নিরাপত্তা আইন এই অধিকার আন্দোলনের পরিবেশকে অধিক পরিমাণে বিপজ্জনক করে তুলেছে।

তার ভাষায়, আমাদেরকে আরো সতর্ক হতে হবে। প্রতিবাদ, প্রতিরোধে আরো সৃষ্টিশীল হতে হবে। আমরা আগে যে উগ্র অবস্থানে ছিলাম, তেমনটা করা যাবে না। যত উগ্র হবো, লড়াইয়ে তবো আমাদের আয়ুষ্কাল কমবে। আমাদেরকে এখন ব্যবহার করতে হবে ব্রেন ও ধৈর্য্য। কারণ এটা এখন এক দীর্ঘ সময়ের লড়াই।

এ যাবত চীনের চাপিয়ে দেয়া বহুল বিতর্কিত নতুন নিরাপত্তা আইনের অধীনে যেসব ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে তার মধ্যে জিমি লাই সবচেয়ে হাইপ্রোফাইল। সোমবার তার প্রতিষ্ঠিত পত্রিকা ‘অ্যাপল ডেইলি’তে ঘেরাও করে তল্লাশি করা হয়। এটি হংকংয়ের সবচেয়ে বেশি পঠিত পত্রিকাগুলোর অন্যতম। অভিযান চালানোর সময় তার অফিসের বাইরে কয়েক শত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। এ দৃশ্য দেখে অসংখ্য মানুষ হতাশা প্রকাশ করেছেন। এদিনই বিদেশি শক্তির সঙ্গে সমঝোতা করার অভিযোগে বিতর্কিত জাতীয় নিরাপত্তা আইনের অধীনে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

শুধু তা-ই নয়, তার মতো ব্যক্তিকে হাতকড়া পরিয়ে বের করে নেয় পুলিশ। এর নিন্দায় ঝড় ওঠে বিশ্বজুড়ে। অবশেষে তিনি জামিনে মুক্তি পান।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন