বিশ্বব্যাপী দ্রুত বাড়ছে করোনার সংক্রমণ

  

পিএনএস ডেস্ক : বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আগের চেয়ে দ্রুত গতিতে বাড়ছে। সাত দিনের গড়ে দেখা গেছে, প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ছাড়িয়ে যাচ্ছে।

শুক্রবার আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম সিএনএন এ খবর জানিয়েছে।

জনসহপকিন্সস বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যানুযায়ী, এপ্রিলে এক দিনে কখনও করোনায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ স্পর্শ করেনি। তবে ২১ মে থেকে পাঁচদিন ১ লাখের কমছিল। তবে জুনের ৩ তারিখে এটি ১ লাখ ৩০ হাজার অত্রিক্রম করে।

খবরে বলা হয়েছে, আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ার কারণ হিসেবে বিভিন্ন দেশের করোনা পরীক্ষার সামর্থ্য বাড়ার বিষয়টি কিছুটা গ্রহণ করা যেতে পারে। পর্যাপ্ত পরীক্ষার অভাবে অনেক দেশেরই করোনায় সংক্রমণের প্রকৃত চিত্রটি জানা যাচ্ছে না।

জনস হপকিংন্স বিশ্বিবিদ্যালয়ের তথ্য বিশ্লেষণ করে সিএনএন জানায়, করোনা প্রাদুর্ভাবের প্রথম দিকে আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি ছিল চীন, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ইতালি, স্পেন ও ফ্রান্স। সম্প্রতি এসব দেশগুলোতে আক্রান্তের হার অনেক কমে এসেছে। তবে দক্ষিণ আমেরিকা, মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকায় আক্রান্তের হার এখন বাড়ছে। এই অঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে লিবিয়া, ইরাক, উগান্ডা, মোজাম্বিক ও হাইতিতে প্রতি সপ্তাহে আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ বাড়ছে। ব্রাজিল, ভারত, চিলি, কলম্বিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রতি দুই সপ্তাহে আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হচ্ছে।

বুধবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক টেডরস আধানম গেব্রিয়েসাস বলেছেন, ‘আমরা বিশেষ করে মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকাকে নিয়ে উদ্বিগ্ন, যেখানে দেশগুলোতে আক্রান্ত বৃদ্ধি দেখতে হচ্ছে।’

সংস্থার জরুরি স্বাস্থ্য কর্মসূচির নির্বাহী পরিচালক ডা. মাইক রায়ান জানিয়েছেন, মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকা তাদের সংক্রমণের চূড়ায় পৌঁছেছে বলে তিনি মনে করেন না।

বৃহস্পতিবার ব্রাজিলে ৩০ হাজারের বেশি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এতে দেশটিতে ভাইরাসে আক্রান্তের মোট সংখ্যা ৬ লাখ ১৫ হাজারে পৌঁছেছে। একই সময় দেশটিতে ১ হাজার ৪৭৩ জন করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হওয়ায় মৃতের সংখ্যা ৩৪ হাজার ছাড়িয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পর করোনায় আক্রান্তের দিক দিয়ে ব্রাজিলের অবস্থান। দেশটি চীন, ইতালি, ফ্রান্স, রাশিয়া ও যুক্তরাজ্যের মতো দ্রুত আক্রান্তের দেশগুলোকে টপকে গেছে। যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ১৯ করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। দেশটিতে এ পর্যন্ত এক লাখ ৮ হাজার ২১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে প্রতিদিন গড়ে ৩০ হাজারের বেশি নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছিল।

গত ডিসেম্বরে চীনের উহান থেকে করোনো মহামারী সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারর্সের তথ্য অনুযায়ী, শুক্রবার রাত ১২ টা পর্যন্ত সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬৭ লাখ ৬৯ হাহার ৬১৫ জনে দাঁড়িয়েছে। আর এতে সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন তিন লাখ ৯৫ হাজার ৩৪৯ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৩২ লাখ ৯৮ হাজার ৭১৪ জন।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন