বিশ্বজুড়ে করোনায় দারিদ্র্যের মুখে ৮৬ মিলিয়ন শিশু!

  


পিএনএস ডেস্ক: করোনা পরিস্থিতির কারণে দেশে দেশে অর্থনৈতিক বিপর্যয় ঘটছে। এ কারণে চলতি বছরের শেষের দিকে বিশ্বজুড়ে অন্তত ৮৬ মিলিয়ন শিশু দারিদ্যের মুখে পড়তে পারে।

জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ এবং সেভ দ্য চিলড্রেনের যৌথ সমীক্ষা এ তথ্য বেরিয়ে এসেছে। খবর এএফপি’র।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিশ্বজুড়ে এই মুহুর্তে ৬৭২ মিলিয়ন শিশু দারিদ্রের কষাঘাতে জর্জরিত। গত বছরের তুলনায় শিশুদের দারিদ্র্যের এই হার এ বছর ১৫ শতাংশ বেড়ে গেছে। করোনার কারণে বছরের শেষের দিকে গিয়ে সেই সংখ্যা বেড়ে যাবে ৮৬ মিলিয়ন।

ভুক্তভোগী শিশুদের দুই-তৃতীয়াংশ সাহারা অঞ্চলীয় আফ্রিকা এবং দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর বাসিন্দা। তবে করোনায় সবচেয়ে বেশি বিপর্যস্ত ইউরোপ এবং মধ্য এশিয়া। ফলে মহামারির ধাক্কায় এসব অঞ্চলের বিপুলসংখ্যক শিশুরাও দারিদ্র্যের মুখে পড়তে যাচ্ছে।

ইউনিসেফের নির্বাহী পরিচালক হেনরিটা ফোর এক বিবৃতিতে জানান, পরিবারের আর্থিক সঙ্কটের ফলে শিশুরাও দারিদ্র্যের শিকার হবে এবং প্রয়োজনীয় চাহিদা থেকে বঞ্চিত হবে।

সেভ দ্য চিলড্রেনের প্রধান ইঙ্গার অ্যাশিং বলেন, তাত্ক্ষণিক ও সিদ্ধান্তমূলক পদক্ষেপের মাধ্যমে আমরা দরিদ্রতম দেশগুলোর শিশুদের এই মহামারি কেন্দ্রিক ঝুঁকি থেকে রক্ষা করতে পারি।

দুইটি সংস্থাই সরকারগুলোর প্রতি আহ্বান জানায়, মহামারী প্রভাব রোধে সামাজিক সুরক্ষাগুলো আরও বর্ধিত করা এবং স্কুলে খাবার সরবরাহ কর্মসূচি শুরু করা উচিত।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন