করোনার ওষুধ ভেবে বিষাক্ত অ্যালকোহল পানে ইরানে ৩০০ জনের মৃত্যু

  

পিএনএস ডেস্ক : করোনাভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে গিয়ে, শেষে বিষমদে প্রাণ গেল ৩০০ জনের। অসুস্থ আরও এক হাজার। ইরানে মদ্যপান আইনত নিষিদ্ধ। তাই চোরাপথে, প্রশাসনের নজর এড়িয়ে, বেআইনি কারবারিদের কাছ থেকে ওই অ্যালকোহল কিনে খেয়েছিলেন তাঁরা। জানতেন না, মদের নামে, শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর মিথানল বিক্রি করা হচ্ছিল। তার জেরে এই মর্মান্তিক পরিণতি হয়।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরানে করোনা থাবা বসাতেই লোকজনের মধ্যে অ্যালকোহল কেনার ঝোঁক বাড়ে। কারণ, সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়াতে থাকে অ্যালকোহল করোনার সংক্রমণকে দূরে রাখতে পারে। যদিও, আসল সত্য তা নয়। বিশেষজ্ঞরা অ্যালকোহল মিশ্রিত হ্যান্ড স্যানিটাইজারে বারবার হাত ধোওয়ার কথা বললেও, কেউই দাবি করেননি মদ্যপানে করোনার সংক্রমণ প্রতিহত করা যায়। কিন্তু, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো বার্তার জেরে লোকজনের মধ্যে অ্যালকোহল খাওয়ার প্রবণতা বাড়ে। তার জেরেই এই ভয়ানক বিপত্তি।

ইরানে ইতিমধ্যে করোনায় প্রায় আড়াই হাজার মানুষ মারা গিয়েছেন। মিথানলের বিষক্রিয়া নিয়ে কাজ করা অসলোর ক্লিনিক্যাল টক্সিকোলজিস্ট ডক্টর কনুত এরিক হোভডা মনে করেন, ইরানে করোনাভাইরাস আরও ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে।

ইরানের ৮ কোটি মানুষ করোনার ঝুঁকিতে রয়েছেন। গোটা বিশ্বের সঙ্গে ইরানেও জোর থাবা বসিয়েছে এই ভাইরাস। রোজই লাফিয়ে বাড়ছে মৃত্যু। ধরা পড়েছে নতুন আক্রান্ত। বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩০ হাজার ৮৫১ জনে

পিএনএস/ জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন