বিশ্বের চোখে ভারত এখন ‘ধর্ষণের রাজধানী’: রাহুল গান্ধী

  

পিএনএস ডেস্ক : ভারত এখন পুরো বিশ্বের চোখে ধর্ষণের রাজধানী বলে মন্তব্য করেছেন সাংসদ ও কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী।

গতকাল শনিবার কেরলের ওয়ানড়ে দেয়া এক বক্তব্যে রাহুল বলেন, ‘বর্তমান প্রদানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গোটা ভারতে হিংসা ও ঘৃণার পরিবেশ তৈরি করেছেন।’

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, ধর্ষণ মামলার শুনানিতে অংশ নিতে যাওয়ার পথে অভিযুক্তদের দেয়া আগুনে পুড়ে আহত হওয়ার দুদিন পর মারা যান ভারতের উত্তরপ্রদেশের উন্নাও জেলার এক তরুণী। গেল শুক্রবার রাত ১১টা ৪০ মিনিটে দিল্লির সফদরজঙ্গ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেরন রাহুল গান্ধী।

শনিবারের জনসভায় রাহুল বলেন, ‘বিশ্বের চোখে ভারত এখন ‘ধর্ষণের রাজধানী’। ভারত কেন নিজেদের মেয়ে-বোনদের নিরাপত্তা দিতে পারছে না- গোটা বিশ্ব এখন এমন প্রশ্ন তুলেছে। সারা দেশে ধর্ষণের মহোৎসব চলছে, অথচ প্রধানমন্ত্রী কিংবা তাঁর সরকারের মন্ত্রীরা এ ব্যাপারে চুপ। কেউ কোনও কথা বলছে না।’

রাহুল আরও বলেন, ‘আমরা এখন একজন প্রধানমন্ত্রী পেয়েছি যিনি নিজেই ঘৃণা ও হিংসার আদর্শে বিশ্বাসী। তারা গোটা রাজনৈতিক জীবনটাই ঘৃণা আর হিংসায় তৈরি। তিনি ধর্মের ভিত্তিতে সম্প্রদায় ও ভাষার মধ্যে বিভাজন তৈরি করে নিজস্ব সংস্কৃতিকে অপমান করেন।’

মোদীর সমালোচনা করে রাহুল বলেন, ‘আমাদের প্রধানমন্ত্রী অর্থনীতি বোঝেন না। ফলে ভারতের জনগণ আতঙ্ক ও অস্বস্তিতে জীবন কাটাচ্ছেন।’

এসময় তিনি জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশের গতিপথ বদলের বদলে দেয়ার আহ্বান জানান।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন