কুয়েতে ক্ষমতাসীন সরকারের পদত্যাগে কী ঘটবে এখন?

  



পিএনএস ডেস্ক: ক্ষমতার অপব্যবহারসহ বিভিন্ন ধরনের অনিয়মের অভিযোগ ওঠার পর কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী পুরো মন্ত্রিসভাকে নিয়ে পদত্যাগ করেছেন। দেশটির আমির সরকারের এই পদত্যাগপত্র গ্রহণ করলেও নতুন সরকার গঠন না হওয়া পর্যন্ত মন্ত্রিসভাকে তত্ত্বাবধায়ক সরকার হিসেবে দায়িত্ব পালনের আদেশ দিয়েছেন।

কুয়েতের সরকারি সংবাদ সংস্থা কুয়েত নিউজ অ্যাজেন্সি (কুনা) এক প্রতিবেদনে বলছে, কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী নেতৃত্বাধীন পুরো মন্ত্রিসভার সদস্যদের অর্থাৎ ক্ষমতাসীন সরকারের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন আমির শেখ সাবাহ আল-আহমাদ আল-জাবের আল-সাবাহ।

কুনা বলছে, তবে নতুন সরকার গঠন না হওয়া পর্যন্ত পদত্যাগকৃত মন্ত্রিসভাকে তত্ত্বাবধায়ক সরকার হিসেবে দায়িত্ব পালনের আদেশ দিয়েছেন কুয়েতি আমির।

চীনা সংবাদমাধ্যম সিনহুয়া বলছে, বৃহস্পতিবার কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী শেখ জাবের আল-মুবারক আল-হামাদ আল-সাবাহ তার সরকারের পদত্যাগপত্র দেশটির আমিরের কাছে জমা দেন।

দেশটির সরকারের মুখপাত্র তারেক আল-মিজরেম এক বিবৃতিতে বলেছেন, সরকারি কাজ নতুনভাবে সাজানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ জাবের তার সরকারের পদত্যাগপত্র আমিরের কাছে হস্তান্তর করেছেন। তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত আর কোনো তথ্য বিবৃতিতে দেয়া হয়নি।

কুয়েতের এই প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতায় আসার পর বেশ কয়েকবার মন্ত্রিসভায় রদবদল হয়েছে। সর্বশেষ ক্ষমতার অপব্যবহার ও নানা ধরনের অনিয়মের অভিযোগে ক্ষমতাসীন সরকারের ব্যাপক সমালোচনা হয় সংসদে।

এমনকি প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিসভার সদস্যদের বিরুদ্ধে সংসদে অনাস্থা প্রস্তাবও আনেন বিরোধীরা। যার জেরে শেষ পর্যন্ত পুরো মন্ত্রিসভাকে নিয়ে পদত্যাগ করতে বাধ্য হলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ জাবের আল মুবারক।

পিএনএস/ হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech