শান্তিতে নোবেলের নাম ঘোষণা হবে আজ; সম্ভাব্য চার বিজয়ী

  



পিএনএস ডেস্ক: চলতি বছরের নোবেল পুরস্কার ঘোষণা শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে মোট ছয় ক্যাটাগরির মধ্যে চারটির বিজয়ীর নাম ঘোষণা করেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ক্যাটাগরি নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে আজ শুক্রবার। কে হবেন এবারের শান্তিতে নোবেলজয়ী তা নিয়ে শুরু হয়েছে জল্পনা।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এক প্রতিবেদনে এবারের নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য সম্ভাব্য বিজয়ীর তালিকা করেছে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বরাতে (বেশিরভাগ সময় এসব প্রতিষ্ঠানের অনুমান সঠিক হয়) তালিকার প্রথম সারিতে থাকা চারজনের নাম প্রকাশ করেছে, এবার তাদের জয়ী হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।

তালিকায় সবার প্রথমের নামটি হচ্ছে সম্প্রতি বহুল আলোচিত এক কিশোরীর। যার নাম গ্রেটা থানবার্গ, পড়াশোনা করে সুইডেনের একটি স্কুলে। জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে আন্দোলনরত কিশোরী গ্রেটাকে নিয়ে এই অনুমান সঠিক হলে সে হবে সর্বকনিষ্ঠ নোবেল জয়ী।

এখন পর্যন্ত সর্বকনিষ্ঠ নোবেল জয়ী তালিকায় নামটি আছে পাকিস্তানের নারী অধিকারকর্মী মালালা ইউসুফজাইয়ের। ২০১৪ সালে সে যখন শান্তিতে নোবেল পায় তখন তার বয়স ছিল মাত্র ১৭ বছর। তবে জলবায়ু আন্দোলনকর্মী কিশোরী গ্রেটা থানবার্গের বয়স এখন ১৬ বছর।

সম্প্রতি দুটি পুরস্কার পেয়েছে গ্রেটা। তার একটি হলো লন্ডনভিত্তিক মানবাধিকার বিষয়ক বেসরকারি প্রতিষ্ঠান অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের সর্বোচ্চ সম্মাননা পুরস্কার। অপরটি সুইডেনের বিকল্প নোবেলখ্যাত রাইট লাইভলিহুড অ্যাওয়ার্ড- ২০১৯।

কিশোরী গ্রেটা থানবার্গ ২০১৮ সালের আগস্টে স্কুল পালিয়ে সুইডিশ পার্লামেন্টের সামনে দাঁড়িয়ে যায়। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় জোরালো পদক্ষেপ নিতে হবে পার্লামন্টের সামনে এমন দাবি তুলে প্রথমবার শিরোনাম হয়ে সবার নজরে আসে সে। তারপর থেকে সক্রিয় ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে তাকে।

নোবেল শান্তি পুরস্কারের ওয়েবসাইটে দেয়া তথ্য মতে, এ বছর নোবেল পুরস্কারের জন্য ৩০১টি মনোনয়ন জমা পড়েছে। যার মধ্যে ২২৩ জন ব্যক্তি এবং বাকি ৭৮টি প্রতিষ্ঠান। তবে গত ৫০ বছর ধরে বিজয়ীর নাম ঘোষণা করার আগে মনোনীতদের তালিকা প্রকাশ করে না নোবেল প্রদানকারী কর্তৃপক্ষ।

তবে এত মানুষ মনোনয়ন পেলেও বিশেষজ্ঞরা বাজি ধরছেন কিশোরী গ্রেটা থানবার্গের পক্ষে। তাদের দাবি এবারের নোবেল পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি তারই। লন্ডনভিত্তিক নামকরা বাজিকর প্রতিষ্ঠান কোরাল গ্রেটার পক্ষে ১/২ এ বাজি ধরেছে।

ব্রিটিশ আরেক বুকমেকার উইলিয়াম হিলও গ্রেটা থানবার্গের পক্ষে ৮/১৩ এ বাজি ধরেছে। প্রতিষ্ঠানটি বুধবার জানিয়েছে, এবারের নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য গ্রেটা থানবার্গের পক্ষে বাজি পড়েছে ৯৬ শতাংশ। তাছাড়া তারা নিজেরাও মনে করছে এবারের নোবেল উঠছে গ্রেটার হাতে।

উইলিয়াম হিলের মুখপাত্র রুপার্ট অ্যাডামসও বাজি ধরেছেন গ্রেটার থানবার্গের পক্ষে। তিনি বলেছেন, বাজিকরা থানবার্গের পক্ষে বাজি ধরে বেশ সন্তুষ্ট। তারা মনে করছেন, কিশোরী গ্রেটাই পাচ্ছেন এবারের নোবেল। তবে বিশ্বনেতাদের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে তার।

লন্ডনভিত্তিক আরেক অনলাইন বাজিকর প্রতিষ্ঠা বেটফেয়ারের অনুমান অনুযায়ী, এবারের শান্তিতে নোবেলের জন্য তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ। যিনি প্রতিবেশী ইরিত্রিয়ার সঙ্গে দীর্ঘদিনের দ্বন্দ্ব নিরসেন কারিগর হিসেবে বিবেচিত।

উইলিয়াম হিলের অনুমান এবারের নোবেল শান্তি পুরস্কার পাওয়ার ক্ষেত্রে ব্রাজিলের আদিবাসী নেতা ও পরিবেশ আন্দোলনকর্মী রাওনি মেতুকতিরে নামও তালিকার উপরে আছে। যিনি বিশ্বের সবচয়ে বড় চিরহরিৎ বন রক্ষায় প্রচারণা চালিয়ে আসছেন দীর্ঘদিন ধরে।

তালিকায় আরও একটি নাম উপরের দিকে রয়েছে। তিনি হলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন। ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে এক বন্দুকধারীর হামলার পর সাহসী পদক্ষেপ আর মহানুভবতার জন্য তিনি গোটা বিশ্বের প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন।

উইলিয়াম হিল ও বেটফেয়ারের মনোনয়ন পাওয়া ৭৮ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দুটিকে এবারের নোবেল শান্তি পুরস্কারের সম্ভাব্য বিজয়ী হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠান দুটি হলো গোটা বিশ্বব্যাপী গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে কাজ করা সংগঠন রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্স এবং জাতিসংঘ মানবাধিকার পরিষদ।

এবারের নোবেল শান্তি পুরস্কার জয়ীর নাম জানতে অপেক্ষা করতে হবে আগামীকাল শুক্রবার নরওয়ের স্থানীয় সময় সকাল ১১টা (বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টা) পর্যন্ত। ওই সময় রাজধানী অসলো থেকে নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি এবারের শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করবে।

পিএনএস/ হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech