যুক্তরাষ্ট্রের জন্য আলোচনার দরজা খোলা : তালেবান

  


পিএনএস ডেস্ক: আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য শান্তি আলোচনার দরজা এখনো খোলা রয়েছে বলে মনে করে আফগান তালেবান। বিবিসির চিফ ইন্টারন্যাশনাল করেসপন্ডেন্ট লাইস ডুয়েটকে এমনটাই জানিয়েছে দলটি। যুক্তরাষ্ট্র বলছে শান্তি আলোচনার ‘মৃত্যু’ ঘটেছে। এ বিষয়ে তালেবানের বক্তব্য কী? বিবিসির এমন প্রশ্নের উত্তরে তালেবানের প্রধান আলোচক শের মোহাম্মদ আব্বাস স্তানিকজাই বলেছেন, আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠার একমাত্র উপায় হচ্ছে আলোচনা।

শের মোহাম্মদ আব্বাস স্তানিকজাই বলেন, যুক্তরাষ্ট্র নিজেই বলছে তারা হাজার হাজার তালেবানকে হত্যা করেছে। কিন্তু এর মধ্যে যদি একজন মার্কিন সেনা নিহত হয়; তার মানে এই নয় যে, তাদের এমন প্রতিক্রিয়া দেখানো উচিত। কেননা যুক্তরাষ্ট্র বা তালেবান; আমাদের কারো দিক থেকে কোনো যুদ্ধবিরতি নেই। এই তালেবান নেতা বলেন, আমাদের দিক থেকে আলোচনার দরজা খোলা আছে। ফলে আশা করি, অন্য পক্ষও আলোচনার বিষয়ে তাদের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করবে।

এ মাসের গোড়ার দিকে যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবানের মধ্যকার শান্তি আলোচনাকে ‘মৃত’ হিসেবে আখ্যায়িত করেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ১৮ বছর ধরে চলমান আফগান যুদ্ধের অবসানে এই আলোচনা শুরু হয়। শান্তিচুক্তির একটি খসড়াও স্বাক্ষরিত হয়েছিল। তবে সেই আলোচনাকে এখন অকার্যকর বলছেন ট্রাম্প। টুইন টাওয়ারে হামলার পর মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটো আফগানিস্তানে হামলা চালিয়ে তালেবান সরকারকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করে।

তখন থেকেই যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্রদের বিরুদ্ধে সশস্ত্র লড়াই করে যাচ্ছে গোষ্ঠীটি। দীর্ঘ ১৮ বছরের যুদ্ধ অবসানের লক্ষ্যে গত বছরের জুন থেকে কাতারের রাজধানী দোহায় মার্কিন কর্মকর্তাদের সাথে ধারাবাহিক আলোচনা শুরু করেন তালেবান কর্মকর্তারা। এরই পরিপ্রেক্ষিতে একটি শান্তিচুক্তিতে একমত হয় দু’পক্ষ। তবে সম্প্রতি কাবুলে তালেবান হামলায় এক মার্কিন সেনা নিহতের পর শান্তিচুক্তি বাতিলের ঘোষণা দিয়ে আলোচনায় ইতি টানার ঘোষণা দেন ট্রাম্প।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech