ধরিয়ে দিলেই পুরস্কার!

  



পিএনএস ডেস্ক: সভ্যতার ঊষালগ্ন থেকে প্রতিনিয়ত সমাজ ব্যবস্থা এগিয়ে চলেছে। কিন্তু উত্তরাধুনিক যুগেও অনেক 'অসভ্যতার' দেখা মিলে সমাজে। বসবাস করে কিছু বিকৃত রুচি ও চিন্তার মানুষ। যাদের বিকৃত কামনার শিকার হচ্ছে অসংখ্য নিরীহ নারী ও শিশু।

কয়েকদিন আগে ভারতের দিল্লির এমনই একটা ঘটনায় তোলপাড় পড়ে গেছে চারদিকে। দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী সামাজিক মাধ্যমে একটি ভিডিও আপলোড করেন গত ১২ ফেব্রুয়ারি। এতে দেখা যায় প্রকাশ্য দিবালোকে বাসের সিটে বসে এক পুরুষ যাত্রী স্বমেহন করছেন।

সেই ভিডিও সোশ্যাল সাইটে ভাইরাল হয়ে যায়। সরব হয়ে উঠেন সমাজের সচেতন মহল।

এবার নড়েচড়ে বসেছে দিল্লি পুলিশও। সেই পারভার্টকে ধরতে দিল্লির আনাচে কানাচে পোস্টারিং করা হয়েছে। কেউ পুলিশকে ওই পারভার্ট সম্পর্কে তথ্য দিতে পারলে ২৫ হাজার রুপি পুরস্কারের ঘোষণাও দেওয়া হয়েছে। তাকে ধরতে ও তার সম্বন্ধে কোনো তথ্য জানা থাকলে পুলিশকে জানানোর আহ্বান জানিয়েছে দিল্লি পুলিশ।

এদিকে অভিযোগকারী সেই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী পুলিশকে বলেছেন, গত ৭ ফেব্রুয়ারি দিল্লির বসন্তভিলেজ থেকে আইআইটি গেট রুটের বাসে এক মাঝবয়সি লোক তার পাশে বসে। এর পর থেকেই বেশ কিছুক্ষণ ওই ব্যক্তি তাকে কনুই দিয়ে স্পর্শ করার চেষ্টা করছিল। এর এক পর্যায়ে সবার সামনেই ওই ব্যক্তি 'স্বমেহন' শুরু করে!

পিএনএস/হাফিজুল ইসলাম

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech