সৌদি আরবে সেনা পাঠানোর অনুমোদন দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী

  

পিএনএস ডেস্ক : সৌদি আরবে পাকিস্তান নতুন করে যে সেনা পাঠাচ্ছে তার অনুমোদন দিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী শাহীদ খাকান আব্বাসি। সৌদি আরবের সঙ্গে পাকিস্তানের দীর্ঘদিনের যে প্রতিরক্ষা সহযোগিতা রয়েছে তার আওতায় তিনি এ অনুমোদন দিয়েছেন বলে খবর দিয়েছে ইংরেজি দৈনিক এক্সপ্রেস ট্রিবিউন। তবে বিষয়টি নিয়ে এরইমধ্যে পাকিস্তানের গণমাধ্যম ও রাজনৈতিক অঙ্গনে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

বর্তমানে সৌদি আরবে এক হাজার ৩৭৯ জন পাকিস্তানি সেনা রয়েছে। নতুন করে কত সেনা পাঠানো হবে তা জানা যায় নি তবে বলা হচ্ছে- এ সংখ্যা এক হাজারের বেশি হবে। পাকিস্তানের নিরাপত্তা সূত্রগুলো বলছে, ১৯৮২ সালে সই হওয়া প্রতিরক্ষা সহযোগিতা চুক্তি অনুসারে এটা নতুন কোনো বিষয় নয়। এসব সেনা সৌদি আরবে প্রশিক্ষক ও সামরিক উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করবে।

বিষয়টি নিয়ে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে যে, পাকিস্তানি সেনাদেরকে ইয়েমেনে পাঠানো হবে। নিরাপত্তা সূত্রগুলো দাবি করছে, ইয়েমেনে কোনো সেনা পাঠানো হবে না এবং নতুন যেসব সেনা পাঠানো হচ্ছে তা রুটিন ওয়ার্ক। তবে এ নিয়ে এরইমধ্যে পাকিস্তানের সংসদ সদস্যরা সরকারের সমালোচনায় মুখর হয়েছেন।

সিনিয়র সিনেটর ফরহাতুল্লাহ বাবর বলেছেন, সৌদি আরবে সেনা না পাঠানোর বিষয়ে সংসদে সর্বসম্মত প্রস্তাব পাস হওয়ার পরও কীভাবে কোনো একক ব্যক্তি সেনা পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিতে পারেন? বিষয়টি সম্পর্কে ব্যাখ্যা দিতে পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রী খুররম দস্তগীর খানকে আগামীকাল সিনেটে তলব করা হয়েছে।

পিএনএস/জে এ /মোহন

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech