জেনে নিন নতুন আতঙ্ক ‘হান্তা ভাইরাস’এর লক্ষণ

  

পিএনএস ডেস্ক : পুরো বিশ্ব যখন করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে, চীনে তখন ভাইরাসটির প্রকোপ কমে এসেছে। তবে নিস্তার মিলছে না দেশটির কর্তৃপক্ষের।

সোমবার দেশটিতে ‘হান্তা ভাইরাস’ নামে এক ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

চীনা গণমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস এক টুইটে জানিয়েছে, ইউনান প্রদেশে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। তিনি একটি চার্টার্ড বাসে করে শানদং প্রদেশে যাচ্ছিলেন। যাত্রাপথে বাসের মধ্যেই তার মৃত্যুই হয়। পরীক্ষা করে তার মধ্যে ভাইরাসটি সনাক্ত করা হয়।

সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) বলছে, হান্তাভাইরাস এক একটি ভাইরাসগোষ্ঠী, যা মূলত ইঁদুর থেকে সংক্রামিত হয়। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে বিভিন্ন রোগের উপসর্গ দেখা যায়। অঞ্চলভেদে হান্তাভাইরাস ভিন্ন ভিন্ন নামে পরিচিত। আমেরিকাতে ‘নিউ ওয়ার্ল্ড’ হান্তাভাইরাস হিসাবে পরিচিত, অন্যদিকে ইউরোপ ও এশিয়াতে এটি ‘ওল্ড ওয়ার্ল্ড’ হানতাভাইরাস হিসাবে পরিচিত।

নিউ ওয়ার্ল্ড হান্তাভাইরাসে আক্রান্ত হলে ফুসফুসজনিত উপসর্গ (এইচপিএস) দেখা দিতে পারে, অন্যদিকে ওল্ড ওয়ার্ল্ড হান্তাভাইরাসে মুত্রাশয়জনিত উপসর্গ (এইচএফআরএস) দেখা দেয়। সঙ্গে রক্তক্ষরণ ও জ্বর হতে পারে।

এইচপিএস’র লক্ষণ:

এইচপিএস’র প্রাথমিক লক্ষণগুলোর মধ্যে ক্লান্তি, জ্বর এবং উরু, পশ্চাতদেশ, পিঠ, কাঁধসহ শরীরের বিভিন্ন পেশিতে ব্যথা হতে পারে। সংক্রামিত ব্যক্তি মাথাব্যথা, মাথাঘোরা, ঠাণ্ডা লাগা এবং পেটের সমস্যায়ও ভুগতে পারে। লক্ষণগুলো একটু দেরিতেও চার থেকে ১০ দিন পর দেখা দিতে পারে। সেক্ষেত্রে আক্রান্তদের কাশি ও শ্বাসকষ্ট হতে পারে, যা কিছুক্ষেত্রে মারাত্মক আকারও ধারণ করতে পারে।

এইচএফআরএস’র লক্ষণ:

এইচএফআরএস’র ক্ষেত্রে ভাইরাসের সংস্পর্শে আসার পরে এক থেকে দুই সপ্তাহের মধ্যে লক্ষণগুলোর বিকাশ ঘটে। তবে কিছু ক্ষেত্রে লক্ষণগুলো দেখাতে ৮ সপ্তাহ পর্যন্ত সময় নিতে পারে। প্রাথমিক লক্ষণগুলোর মধ্যে রয়েছে তীব্র মাথাব্যথা, পিঠ ও পেটব্যথা, জ্বর, সর্দি, বমি বমি ভাব এবং ঝাপসা দৃষ্টি। অন্যদিকে, দেরিতে দেখা দিলে নিম্ন রক্তচাপ, তীব্র শক, রক্তনালীতে ছিদ্র ও তীব্র কিডনির ফেইলিউর হতে পারে।

পিএনএস/ এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন