করোনা আতঙ্কে 'আলাদা' হয়ে গেলেন সালমান খান

  


পিএনএস ডেস্ক: সারাবিশ্বের মানুষ মারণ করোনাভাইরাসের জেরে আতঙ্কে। ভারতেও এই ভাইরাস থাবা বসিয়েছে। গোটা বিশ্বকে ক্রমেই মৃত্যুপুরীতে পরিণত করছে প্রাণঘাতী এই করোনাভাইরাস। এরই মধ্যে বিশ্বব্যাপী মৃতের সংখ্যা ২৪ হাজার ছাড়িয়েছে। আর আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে সোয়া ৫ লাখ। এশিয়ার অন্যতম বৃহত্তম রাষ্ট্র ভারতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭২৭ জনে। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২০ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৪৫ জন।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আগামী গোটা ভারতে ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছেন। বন্ধ রয়েছে দেশটির বিনোদন জগৎ। সিনেমার শুটিং কবে আবার শুরু হবে তা কেউই এখন বলতে পারছেন না। করোনা সংক্রমনের আতঙ্কেই প্রত্যেকে ঘরবন্দি। আর সেই একই কারণে বলিউডের সুপারস্টার সালমান খান নিজেকে নিরাপদে রাখার জন্য তার পানভেল ফার্ম হাউসে গিয়ে উঠেছেন।

তবে সালমান একা নন। সঙ্গে গিয়েছেন তার বোন অর্পিতা এবং অর্পিতার দুই সন্তান। এছাড়া পরিবারের বাকি সদস্যরা। ফার্ম হাউসে থেকে সালমানের পরিকল্পনা অর্পিতার সন্তান আহিল ও আয়াতের সঙ্গে সুন্দর সময় পার করা।

এই মুহূর্তে সালমানের নতুন ছবি 'রাধে ইওর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই'র শুটিং করার কথা ছিল। কিন্তু করোনা সংক্রমনের জেরে সেই শুট এখন স্থগিত রাখতে হয়েছে তাকে। তবে করোনার জন্য যে তিনি একঘেয়েমি শিকার হয়েছেন তা বলা চলে না। কারণ কিছুদিন আগেই সালমান খান ছবি পোস্ট করেছিলেন যে তিনি ঘর বন্দী অবস্থায় ছবি এঁকে সময় কাটাচ্ছেন। আর বলিউডের সুপারস্টার যে একজন শিল্পী হিসেবে কতটা দক্ষ তা তার ভক্তরা ভালোমতোই জানেন।

পিএনএস/আনোয়ার

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন