নার্ভাস মিথিলা, আশীর্বাদ চান সবার

  


পিএনএস ডেস্ক: কলকাতার চিত্র পরিচালক সৃজিত মুখার্জিকে বিয়ে করার পর থেকেই সুইজারল্যান্ডে আছেন বাংলাদেশের মডেল-অভিনেত্রী রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা। সেখানে যাওয়ার উদ্দেশ্য পিএইচডি প্রোগ্রামে রেজিস্ট্রেন ও মধুচন্দ্রিমা। কিন্তু সেখানে গিয়েই তিনি নার্ভাস হয়ে গেছেন, এর থেকে উত্তরণের জন্য সবার কাছে আশীর্বাদ চেয়েছেন তিনি।

অথচ জীবনের নতুন ইনিংস শুরু করার সময় বেশ হাস্যেজ্জ্বল দেখাচ্ছিল মিথিলাকে। বোঝাই যাচ্ছিল, চেনাজানা সৃজিতকে পাশে পেয়ে বেশ নির্ভার মিথিলা। তবে এবার নিজের নার্ভাসনেসের কথা জানালেন নিজেই।

পারিবারিক আবহে বিয়ের পর গত শনিবার সুইজারল্যান্ডে পারি দিয়েছেন সৃজিত-মিথিলা যুগল। মুধুচন্দ্রিমার পাশাপাশি সেখানে মিথলা নিজের পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করার কাজটা শুরু করবেন, এমনটি জানা গিয়েছিল আগেই। এরই মধ্যে মিথিলা পা রেখেছেন তার নতুন ক্যাম্পাসে। সেখানকার ইউনিভার্সিটি অব জেনেভাতে পৌঁছে বেশকিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেন তিনি। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে পোস্ট করা ছবিগুলোতে মিথিলাকে হাসতে দেখা গেলেও নতুন ক্যাম্পাস নিয়ে খানিকটা চিন্তিত মিথিলা, তা বোঝা গেল তার দেয়া ক্যাপশনে। সেখানে তিনি লেখেন, জীবনের আরেকটি নতুন অধ্যায়ে পদার্পণ করলাম। ইউনিভার্সিটি অব জেনেভাতে পিএইচডি শুরু করলাম। এর আগে কখনো এতটা নার্ভাস হইনি। এই অধ্যায় সফলভাবে সম্পন্ন করতে বন্ধু ও পরিবারের সবার দোয়া ও আশীর্বাদ প্রয়োজন।’

গত ৬ ডিসেম্বর বিয়ে সেরছেন সৃজিত-মিথিলা। বিয়ের ঘটনায় চমক থাকলেও নাটকের নাটকীয়তায় কিংবা সিনেমায় সাসপেন্স -কিছুই ছিল না আয়োজনে। ভারতের কলকাতায় একটি ফ্ল্যাটে নিকটাত্মীয়, ঘনিষ্ঠজনদের নিয়ে সৃজিতকে জীবনসঙ্গী করে নিলেন মিথিলা। মিথিলা এসেছিলেন বাংলায় চিরায়ত বধূ সাজে। তার পরনে ছিল ঐতিহ্যবাহী জামদানি, কপালে ছিল ছোট্ট টিপ। সৃজিতকে দেখা গেল কালো পাঞ্জাবির সাথে লাল জহরকোর্ট পরিহিত অবস্থায়। অনুষ্ঠানস্থলে হাজির হয়েছিলেন মিথিলার মেয়ে আইরা। শুধু তা-ই নয়, নবদম্পতির মধ্যমনি হয়ে ছবিও তুলেছেন আইরা। এ ছাড়া ছিলৈন দুই পরিবারের উল্লেখযোগ্য সদস্যরা।

সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় মিথিলা ও সৃজিত মুখার্জী
প্রথমে অবশ্য বন্ধুত্ব দিয়ে যাত্র শুরু তাদের। ধীরে ধীরে প্রেমের পথে পা বাড়ান তিনি। বেশ কয়েক মাস ধরেই তাদের বিয়ে নিয়ে নানা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। খবর রটেছিল, আগামী বছরের মার্চে বিয়ে করতে যাচ্ছেন তারা। তবে সবাইকে চমকে দিয়ে বিয়ের কাজটা সেরেই ফেললেন তারা।

পিএনএস/মো. শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন