বোনের বাসায় নিয়ে ধর্ষণ, রাবির দুই ছাত্র কারাগারে

  

পিএনএস ডেস্ক:ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) দুই শিক্ষার্থীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার (১১ মার্চ) দিবাগত রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শাহ্ মখদুম (এসএম) হল থেকে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী জাহিদ হাসান শোভন ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের একই বর্ষের শিক্ষার্থী তরুন কুন্ড।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ভুক্তভোগী ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য জাহিদ হোসেনের কাছে প্রাইভেট পড়তেন। গত ১৫ ফেব্রুয়ারি সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের এসএম হলের পেছনে ফাঁকা মাঠে ভুক্তভোগীতে প্রাইভেট পড়াতে বসেন তিনি। পড়ানো শেষে দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে গল্প করার কথা বলে রাজশাহী কমার্স কলেজের পাশে তরুন কুন্ডের বোনের বাসায় নিয়ে যান। পরে একটি কক্ষে ঢুকে জাহিদ ভেতর থেকে দরজা বন্ধ করে ভুক্তভোগীকে ধর্ষণ করেন। কিছুক্ষণ পরে তরুন কুন্ড ওষুধ নিয়ে এসে দু’জন মিলে তাকে ওষুধটি খাওয়ায়। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ঘটনাটি প্রকাশ না করতে বলেন জাহিদ। কিন্তু পরবর্তীকালে ভুক্তভোগীকে বিয়ে করতে রাজি না হলে থানায় এসে জাহিদের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগীর বাবা মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয়ে নগরীর মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ পারভেজ বলেন, বুধবার (১১ মার্চ) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ভুক্তভোগীর বাবা থানায় এসে মামলা করেন। পরে দেড়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের এসএম হল থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পিএনএস/এএ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন