জ‌গন্নাথে সাংবাদিক পেটাল ছাত্রলীগ

  

পিএনএস ডেস্ক : জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জ‌বি) ছাত্রলী‌গের স্থগিত কমিটির হামলার শিকার হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত বেশ ক‌য়েকজন সাংবাদিক।

সোমবার দুপুর ১২টা থেকে জবি ছাত্রলীগের স্থগিত কমিটির সঙ্গে নতুন কমিটি প্রত্যাশীদের এ সংঘর্ষ বাধে।

দফা ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার এক পর্যায়ে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে স্থগিত কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পক্ষের নেতাকর্মীরা সাংবাদিকদের ওপর হামলা করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকেল ৩টার দিকে ছাত্রলীগের স্থগিত কমিটির সভাপতি তরিকুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক শেখ জয়নুল আবেদীন রাসেলের কর্মীরা ক্যাম্পাস গেটে মারমুখী অবস্থান নেয়। এ‌ সময় তথ্য সংগ্রহ করতে গে‌লে দৈ‌নিক সংবা‌দের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি রা‌কিবুল ইসলামের মাথায় রামদা দি‌য়ে আঘাত করে তারা।

এ ছাড়া তাদের হামলার শিকার হন দৈনিক সর্বকালের ল‌তিফুল ইসলাম, বি‌ডি ২৪ রি‌পোর্ট ডটক‌মের সানাউল্লাহ ফাহাদসহ সাত সাংবাদিক।

পরে পুলিশ তাদের উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী সুমনা হাসপাতাল ও ন্যাশনাল মেডিকেলে প্রেরণ করেন।

ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলার পর বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। তা‌দের হা‌তে পিস্তল, কক‌টেল, চাইনিজ কুড়াল, চাপা‌তি, রামদা, ব‌টি, হকিস্টিকসহ দেশীয় ধারল অস্ত্র দেখা যায় ।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শেখ জয়নুল আবেদীন রাসেল বলেন, ক্যাম্পাসে কী হচ্ছে তা আমরা জানি না। এটা জানার কথা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের। কারা কী করছে এর দায় আমাদের ওপর এখন বর্তায় না।

অন্যদিকে সভাপতিকে ফোন দেওয়া হলে তিনি ফোন কেটে দেন।

এ ছাড়া জবি প্রক্টর নূর মোহাম্মদকে একাধিক বার ফোন দেওয়া হলেও তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি রেজুয়ানুল হক শোভন বলেন, সাংবাদিকদের ওপর আঘাত অত্যন্ত দুঃখজনক। তাদের (জবি ছাত্রলীগ) একবার স্থগিত করে সংশোধনের সুযোগ দিয়েছি। এ ব্যাপারে তদন্ত করে কঠিন থেকে কঠিনতর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই মুহূর্তে ক্যাম্পাসের আশপাশে বিভিন্ন স্থানে উভয় গ্রুপের শতাধিক নেতা কর্মী ভাগ ভাগ হয়ে অবস্থান নিয়েছে। ফলে আশপাশের এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। আশপাশের বেশির ভাগ দোকানপাট বন্ধ রয়েছে।

পিএনএস/জে এ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech