মুনাফা করেছে বিজিএফসিএল

  

পিএনএস, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস্ কোম্পানি লিমিটেড (বিজিএফসিএল)-এর ৫৯তম বার্ষিক সাধারণ সভা কোম্পানি বোর্ডের চেয়ারম্যান এবং জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব মো: আবুবকর সিদ্দিকের সভাপতিত্বে ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়।

বিজিএফসিএল প্রাকৃতিক গ্যাস উৎপাদনকারী সর্ববৃহৎ রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান। প্রাকৃতিক গ্যাস উত্তোলন ও এর সহজাত কনডেনসেট প্রক্রিয়াকরণ করে জ্বালানি চাহিদা পূরণের মাধ্যমে এ কোম্পানি দেশের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে।

২০১৩-১৪ অর্থবছরে প্রাকৃতিক গ্যাস ও পেট্রোলিয়ামজাত দ্রব্যাদি বিক্রয় এবং অন্যান্য খাতের আয়সহ কোম্পানির মোট রাজস্ব আয় ছিল ২,৭১৪.২৭ কোটি টাকা যা থেকে স¤পূরক শুল্ক ও ভ্যাটসহ রাজস্ব ও অন্যান্য ব্যয় বাদ দেয়ার পর কোম্পানি মোট ৩১০.৯৭ কোটি টাকা করপূর্ব মুনাফা অর্জন করে।

আলোচ্য অর্থবছরে কোম্পানি সম্পূরক শুল্ক ও ভ্যাট, ডিএসএল, লভ্যাংশ এবং আয়কর বাবদ মোট ২,৩২৭.৬২ কোটি টাকা সরকারি কোষাগারে জমা প্রদান করেছে। আলোচ্য অর্থবছরে বিজিএফসিএল এর ৫টি ফিল্ডের ৩৮টি কূপ হতে দৈনিক গড়ে প্রায় ৭৮৯.১১ মিলিয়ন ঘনফুট হারে মোট ২৮৮,০২৫.০০৪ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস উৎপাদন করা হয়েছে যা দেশের মোট গ্যাস উৎপাদনের প্রায় ৩৪%। পাশাপাশি গ্যাসের উপজাত হিসেবে কো¤পানির কনডেনসেট উৎপাদনের পরিমাণ ছিল ২৮,৪২৫,১৯৩ লিটার বা ১৭৮,৭৭৬ ব্যারেল।

কোম্পানির নিজস্ব ফিল্ডসমূহে উৎপাদিত কনডেনসেটসহ কতিপয় অন্য ফিল্ডের উৎপাদিত কনডেনসেট কো¤পানির ফ্রাকশনেশন পন্ডান্টে প্রক্রিয়াকরণ করে প্রাপ্ত এমএস (পেট্রল) ও এইচএসডি (ডিজেল) বিপণনের জন্য বিপিসি, মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেড ও পদ্মা ওয়েল কোম্পানি লিমিটেডকে সরবরাহ করা হয়।

কূপ খনন/ওয়ার্কওভার ও গ্যাস কম্প্রেসর স্থাপনের মাধ্যমে দেশের ক্রমবর্ধমান গ্যাস চাহিদা পূরণ ও গ্যাস সংকট মোকাবিলাসহ নিরবচ্ছিন্নভাবে গ্যাস সরবরাহ অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে প্রায় ৫১৭০.০০ কোটি টাকায় মোট ১৬টি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। তন্মধ্যে বিজিএফসিএল এর নিজস্ব অর্থায়নে ৫টি, এডিবি অর্থায়নে ৩টি, জিওবি অর্থায়নে ১টি, জাইকা অর্থায়নে ১টি ও জিডিএফ অর্থায়নে ৬টি প্রকল্প রয়েছে। প্রকল্পসমূহের মধ্যে ২০১৩-১৪ অর্থবছরে বাস্তবায়নাধীন প্রকল্পের আওতায় ৮টি নতুন কূপ খনন এবং ২টি বিদ্যমান কূপ-এর ওয়ার্কওভার/পুনঃসম্পাদন করে দৈনিক প্রায় ১২৫ মিলিয়ন ঘনফুট হারে গ্যাস জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করা সম্ভব হয়েছে। তিতাস ফিল্ডে আরও ৪টি নতুন কূপ খননের কার্যক্রম সম্পন্নের পথে যা সফলভাবে বাস্তবায়িত হলে আশা করা যায় দৈনিক প্রায় ৮০-১০০ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হবে। এতে দেশের গ্যাস সংকট অনেকাংশে হ্রাস পাবে।
বার্ষিক সাধারণ সভায় কোম্পানির উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রা অব্যাহত রেখে রাষ্ট্রের উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে দক্ষতা ও মেধার পাশাপাশি সততা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করায় কোম্পানি বোর্ডের চেয়ারম্যান বিজিএফসিএল এর কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি কোম্পানির সাফল্যের ধারা সচল রাখতে সম্মানিত শেয়ারহোল্ডার, মন্ত্রণালয়, পেট্রোবাংলা, কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ, বিদেশি সাহায্য সংস্থা ও সংশিষ্ট অন্যান্য সংস্থার সহযোগিতা ও সমর্থন আগামী দিনেও অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।


পিএনএস/প্রধান/শাহাদাৎ

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech