নবীনগরে ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষক গ্রেফতার

  

পিএনএস, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা নবীনগর উপজেলার কনিকাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষক কাজী মুরাদ (২৭) এর বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে প্রতিকার চেয়ে ধর্ষিতার চাচা মো. আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে মঙ্গলবার দুপুরে (০২/০৭/১৯) অভিযুক্ত শিক্ষককের বিরুদ্ধে নবীনগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ অভিযোক্ত ওই শিক্ষককে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

পুলিশ ও এলাকাবাসি সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কনিকাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ইংরেজি শিক্ষক কাজী মুরাদ দীর্ঘদিন ধরে উক্ত বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রীকে প্রাইভেট পড়ানোর নামে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে তোলে। সোমবার (০১/০৭/১৯) বিকেলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শিক্ষক মুরাদ তার পৌরএলাকার হাসপাতাল পাড়ায় নিজ বাড়িতে নিয়ে ওই ছাত্রীকে সকাল থেকে রাত পুর্যন্ত ধর্ষন করে। এবং ওই দিনই রাত দশ’টায় উপজেলার সদর বাজারের সমবায় সুপার মার্কেটের সামনে শিক্ষক মুরাদ তার ছাত্রীকে রেখে চলে যেতে চায়। স্থানিয়রা রিষয়টি টের পেলে দুজন কে আটক করে তাদের পরিবারকে খবর দেয়।

এ বিষয়ে নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রনোজিত রায় মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,‘বিদ্যালয়ের শিক্ষক কাজী মুরাদকে আসামি করে একটি ধর্ষনের মামলা হয়েছে। অভিযোক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

তবে এ বিষয়ে কনিকাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিরুল ইসলামকে মুঠোফোনে বারবার ফোন করলেও তিনি ফোন ধরেননি।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech