ফসলের সাথে এ কেমন শত্রুতা!

  

পিএনএস, মহাদেবপুর (নওগাঁ) প্রতিনিধি : নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার রাইগাঁ ইউনিয়নের রহট্রা গ্রামের রফিকুল ইসলাম (৩৫) নামে এক কৃষকের সাড়ে পাঁচ বিঘা জমির চিনি আতপ ধানক্ষেতে রাতের আঁধারে বিষাক্ত কীটনাশক প্রয়োগ করেছে দুর্বৃত্তরা। এতে তার জমির ধানগাছ পুড়ে বিবর্ণ হয়ে গেছে ও প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত ওই পরিবারের মাঝে চলছে শোকের মাতম। আর নির্মম এ ঘটনাটিকে মানব জাতির জন্য একটি কলঙ্কজনক অধ্যায় বলে আখ্যায়িত করেছে এলাকার সচেতন মহল। রাতের অন্ধকারে জমিতে আগাছানাশক দেয়ায় গ্রামজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। গ্রামবাসীরা এখন রাত জেগে ক্ষেত পাহারা দিচ্ছে।

রোববার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার রহট্রা গ্রামের মাঠে অতিরিক্ত মাত্রায় আগাছানাশক স্প্রে করায় সাড়ে পাঁচ বিঘা জমির ধানগাছ পুড়ে বিবর্ণ হয়ে গেছে। এক হৃদয়বিদারক দৃশ্য। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের অধিকাংশ সদস্যের চোখে-মুখে কাঁন্নার ছাপ। এদের কারো মুখে কোন কথা নেই।
জানা গেছে, রফিকুল ইসলাম জমিতে হালচাষ, সার, কীটনাশক, সেচসহ সব কিছুর টাকা এনেছে এনজিও থেকে লোনের মাধ্যমে। ধান বিক্রি করে এনজিওর লোন পরিশোধ হবে। বাঁকি ধানে বছরের যে কয়েক মাস যায় ছেলে সন্তান নিয়ে দু’বেলা খেয়ে বাঁচবে। কিন্তু দুর্বৃত্তরা রাতের আঁধারে সব শেষ করে দিলো।

এদিকে পূর্ব বিরোধের জের ধরে মাঠের ধান পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে বলে গত ১৬ নভেম্বর শনিবার ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক রফিকুল ইসলাম বাদি হয়ে একই গ্রামের আব্দুল খালেক (৩৭), লাবলু (৩৬), মকলেছুর রহমান (৩৮), হানিফ (২৫), মোরশেদ (৩৩), আজিজুল (৩৮), বেলাল (৪২) ও ইসমাইলের (৪৫) বিরুদ্ধে মহাদেবপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘গত ১৫ নভেম্বর শুক্রবার খবর পাই আমার জমির ধান জ্বলে গেছে। রোদের প্রখরতা বাড়ার সাথে সাথে ধানের জ্বলা রং আরো বেশি করে বোঝা যাচ্ছে। বিকেল নাগাদ জমির পুরোপুরি ধান গাছ জ্বলে যায়। আমার প্রতিপক্ষ অতিরিক্ত মাত্রায় আগাছানাশক ছিটিয়ে শত্রুতা করে এসব করেছে।’

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ অরুন চন্দ্র রায় বলেন, ‘ক্ষতিগ্রস্ত জমি পরিদর্শন করা হয়েছে। অতিরিক্ত মাত্রায় আগাছানাশক স্প্রে করার ফলে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।’

অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করে মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম জুয়েল বলেন, তদন্ত পূর্বক দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

পিএনএস/মোঃ শ্যামল ইসলাম রাসেল

 

@PNSNews24.com

আপনার মন্তব্য প্রকাশ করুন
Developed by Diligent InfoTech