পাঠকের চিঠি

‘সরকারের মাল, দরিয়ায় ঢাল’

  

পিএনএস (আসিফ নজরুল) : আমার বাবা ছিলেন বাংলাদেশ বেতারের একজন প্রকৌশলী। প্রথম শ্রেণির সরকারি কর্মকর্তা হয়েও তিনি সংসার চালানোর জন্য অফিস শেষে টিউশনি করতেন। তাঁর চরম কৃচ্ছ্র নিশ্চয়ই প্রভাব ফেলেছিল আমাদের জীবনে। যেমন: সর্বশেষ মোবাইল ফোনসেট কিনতে আমি খরচ করতে পেরেছি ১৪ হাজার টাকা। খোঁজ নিয়ে দেখি, আমার মতো বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের মোবাইল সেটের দাম এ রকমই, দু-একজনেরটা বড়জোর ২৫-৩০ হাজার টাকা।মোবাইল ফোন নিয়ে এই খোঁজখবর নিয়েছি সরকারের একটি সিদ্ধান্ত জানার পর। এই সিদ্ধান্ত মোতাবেক মোবাইল সেট কেনার

সমাজ অধঃপতন হয়ে কোন দিকে যাচ্ছে?

  

পিএনএস (ডা. তারাকী হাসান মেহেদী) : বাচ্চা পেটে আসার ২৮ সপ্তাহের মধ্যে বাচ্চা নষ্ট করলে সেটাকে এবরশন বা গর্ভপাত বলে। আমাদের দেশে আইন অনুযায়ী এবরশন বা গর্ভপাত নিষিদ্ধ হলেও এর সংখ্যা দিনে দিনে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে। শুধুমাত্র ২০১৪ সালেই দেশে প্রায় ১২ লাখ এবরশন করানো হয়। (সূত্র: গুটম্যাকার, ২০১৭)।সবচেয়ে চিন্তার দিক হল, এবরশন পরবর্তী জটিলতায় মাতৃমৃত্যুর হারও বাড়ছে। ২০১০ সালে যেখানে এবরশনের কারণে ১ ভাগ মাতৃমৃত্যু হত, সেখানে ২০১৬ সালে বৃদ্ধি পেয়ে সেটা হয়েছে ৭ ভাগ। (BMMS ২০১৬)।এর কারণ হল, একদিকে

‘কোনো ভুল হলি পারে মাফ চাচ্ছি, তাও জানে মাইরেন না’

  

পিএনএস ডেস্ক : ইলিশ মাছের পেটির মত চাকা চাকা করে কাটা হলো লোকটার হাত। ঘাড়ের পিছনে ধারালো অস্ত্রের উপর্যুপুরি আঘাতে কুচি কুচি হয়ে গেল শিড় দাড়ার উর্ধ্বাংশ। আলতার মত টকটকে গাঢ় লাল রক্ত ফিনকি দিয়ে বেরিয়ে ভিজিয়ে দিল পিচ ঢালা রাস্তা। কেউ শুনলো না তার আর্তনাদ। কেবল কয়েকটি ঝিঝি পোকা ডেকে গেলো নিশুতি রাতের স্তব্ধতা ভেঙ্গে।নাহ! এত সহজে কাবু করা যায়নি সাঁথিয়া থানার ছোন্দাহ গ্রামের মিরাজকে।প্রথম আঘাতটার পরই মিরাজ বুঝতে পারে তার সাথে কি হতে চলেছে। জড়িয়ে ধরে ঘাতকের পা। কাকুতি-মিনতি করে

চিকিৎসাশাস্ত্রে বিপ্লব ঘটিয়েছিল যে আবিষ্কার

  

পিএনএস (মুজতাবা তামীম আল মাহদী) : ১৮৯৫ সালের শীতকাল। নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহ শেষ হয়ে দ্বিতীয় সপ্তাহ শুরু হলো। দিনটি ছিল ৮ই নভেম্বর। জার্মানিতে এই সময়ে ভালোই ঠাণ্ডা পড়েছে।Wuerzburg University-র পঞ্চাশ বছর বয়স্ক একজন পদার্থবিজ্ঞান বিষয়ের প্রফেসর তার ল্যাবরেটরিতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছিলেন। তিনি বেশ কয়েকদিন ধরে ক্যাথোড রশ্মির প্রভাব নিয়ে কাজ করছেন।এই প্রভাব লক্ষ্য করতে তিনি বিভিন্ন গ্যাসের মধ্যে দিয়ে নিম্নচাপে তড়িৎ প্রবাহ করাচ্ছিলেন। একটু আগেই তিনি লক্ষ্য করলেন, ডিসচার্জ টিউবের মধ্য দিয়ে

রমজান মাসে মক্কার ইফতারে মেহমান সবাই

  

পিএনএস ডেস্ক: ‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক’ এই ধ্বনি কখনো স্তব্ধ হয় না মক্কা আল মুকাররমায় মসজিদুল হারামে। অনেকের ধারণা শুধু হজের সময়েই হাজি সাহেবরা এই ‘তালবিয়া’ পড়ে থাকেন। বিষয়টি তেমন নয়। পবিত্র কাবা স্থাপনের পর থেকে এক মুহূর্তের জন্য এই তালবিয়া এবং তাওয়াফ বন্ধ হয়নি। বছরজুড়েই বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে লাখ লাখ মুসলিম পবিত্র ওমরাহ পালনের জন্য মক্কায় আসেন। তবে সবচেয়ে বেশি মুসল্লির সমাগম হয় মাহে রমজানে২০১৭ সালের প্রথম তিন রমজান মক্কায় পালনের সৌভাগ্য হয়েছিল আমার। মিসফালায় কবুতর চত্বরের পাশেই

মেয়ের বাবা

  

পিএনএস (মোস্তফা মামুন) : লিফট আছে এ রকম বিল্ডিংয়ের সিঁড়ি দিয়ে ওঠাটা দ্বিগুণ কষ্টের। শারীরিক পরিশ্রমের সঙ্গে খিঁচড়ানো মেজাজও যোগ হয়। তার উপর যদি লিফটটা আটকে রাখা হয় ভিআইপির জন্য তাহলে কষ্টটা আরেক গুণ বেড়ে তিনগুণ হয়ে যায়। আমি এখন এমন তিনগুণ কষ্ট নিয়ে সিঁড়ি ভাঙছি। কষ্টটাকে চারগুণ করে দিল সুজন। সিঁড়ির রেলিং ধরে আস্তে আস্তে এগোচ্ছি, এমন সময় কানের কাছে এসে বলল, ‘আনোয়ার ভাই, একটা গোপন কথা আছে।’ সুজনের সব সময় গোপন কিছু কথা থাকে। কিছু মানুষ আছে তারা কানে কানে না হলে, একা না পেলে কথা বলতে পারে না।

সাধারণ জীবনের অসাধারণ গল্প

  

পিএনএস, মারুফ রহমান : মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য। গানের এই লাইন দুটির সাথে আমরা অনেক পরিচিত। কিন্তু বাস্তবে খুব কম মানুষের জীবনেই এই কথাটির প্রতিফলন দেখা যায় না। বাস্তবে আমরা সবাই নিজেদের নিয়ে এতটাই ব্যস্ত যে, অন্যের ভাল-মন্দের খেয়াল রাখার সময় আমাদের নেই। তবে প্রচলিত সমাজ ব্যবস্থায় অসহায় মানুষের উপকার করা যেখানে বিত্তবানদের সবচেয়ে বড় প্রচারণা, সেখানে কিছু সাধারন মানুষ এখনো নিরবে নিভৃতে অসহায়ের অবলম্বন হয়ে আছেন। এমনই একজন মানুষ টাংগাইল জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আসাদুজ্জামান

অনেক দূরে “মা”

  

পিএনএস ডেস্ক:সৈয়দ হাফিজুল ইসলাম==================অনেক দূরে আছি গো মাআমি তোমায় ছেড়েইচ্ছে করে বারে বারেদেখতে যাই তোমারে।প্রতি সন্ধ্যায় আসে ট্রেনযায় খুলনার দিকেদেখে দেখে মনটা আমারযায় গো হয়ে ফিকে।একা যখন থাকো বসেজানি ভাবনা কোথায় সদাচাইলেই তো আর হয় না যাওয়াজীবন সুতোয় বাঁধা। ১৩মে, ২০১৮ইংসেগুনবাগিচা, ঢাকাপিএনএস/আনোয়ার

বেপরোয়া ব্যাংকিং ও খেলাপি ঋণের খাদ

  

পিএনএস (রাশেদ আল মাহমুদ তিতুমীর) : বাংলাদেশের ব্যাংকগুলোর অবস্থা হয়েছে মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা! বছরের শুরুতে ব্যাংকিং খাত পড়েছে তারল্যসংকট ও সুদের হারের বৃদ্ধির দশায়। ইতিমধ্যে এ খাত খেলাপি ঋণের ভারে নুয়ে পড়া এবং অনিয়ম ও বিচারহীনতায় নিমজ্জিত, লাগামহীন লোপাটে তলায়মান। এ অবস্থায় যেখানে ব্যাংকগুলোকে শৃঙ্খলায় আনা দরকার ছিল, সেখানে ব্যাংকের মালিকদের চাপের মুখে আরও ছাড় দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। ছাড়ের তালিকায় রয়েছে: ১. ব্যাংকগুলোর নগদ জমা সংরক্ষণ বা ক্যাশ রিজার্ভ রেসিও (সিআরআর) সাড়ে ৬ শতাংশ থেকে কমিয়ে সাড়ে ৫

ক্লোনিং : দিশেহারা ডিজিটাল দেশবাসী

  

পিএনএস (শান্তা ফারজানা) : ‘হ্যালো, ওয়াহিদুল বলছি। তোমরাতো এখন অফিসে। আমি একটু ব্যস্ত আছি। আমি একটি নাম্বার পাঠাচ্ছি। সেই নাম্বারে দ্রুত ১০,০০০ টাকা পাঠিয়ে দাও।ওকে...।’ এভাবেই সরকারি কর্মকর্তার মোবাইল নম্বর ক্লোন করে টাকা দাবি করেছে একটি প্রতারক চক্র। এতদিন গরু বা মেষ ক্লোন হওয়ার কথা আমরা শুনেছি কিন্তু এবার শোনা যাচ্ছে, সিম ক্লোন করে একই নাম্বার অন্য কেউ ব্যবহার করতে পারে।সাম্প্রতিক ওয়েবসাইট হ্যাক করার ঘটনা প্রচুর ঘটলেও মোবাইল ফোনের সিম হ্যাক করার ঘটনা একেবারেই নতুন। কোনও মোবাইল ফোনের একই

Developed by Diligent InfoTech